kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কল্যাণী: বিজেপি’র নিহত কর্মীদের উদ্দেশে তর্পণ নিয়ে বুধবার সরগরম ছিল রাজ্য রাজনীতি। বাগবাজার ঘাটে ঘটা করে তর্পণ অনুষ্ঠান আয়োজন করেছিল গেরুয়া শিবির। সেই অনুষ্ঠানের অনুমতি দেয়নি পুলিশ। এরপর কৈলাস বিজয়বর্গীয়র নেতৃত্বে পথ অবরোধ করে বিজেপি। পরে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে বাগবাজারের পাশের গোলাবাড়ি ঘাটে চলে তাদের তর্পণ অনুষ্ঠান। বিজেপি’র দাবি, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় তাদের এই তর্পণ অনুষ্ঠানে বাধা দিয়েছে পুলিশ-প্রশাসন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার কল্যাণীতে দলীয় সভায় বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়।

কল্যাণী ঘোষপাড়ার ওই সভায় জয় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘বাগবাজারে আমাদের সিনিয়র লিডাররা তর্পণ করতে গিয়েছিলেন। সেই তর্পণে বাধা দিয়েছে। বড্ড বাড়াবাড়ি হয়ে যাচ্ছে কিন্তু। মনে রাখবেন, আগামী মে মাসে বিধানসভা ভোটের ফল বের হবে। আর জুন মাসে আমরা বিজেপি সরকার গঠন করব। যদি বাড়াবাড়ি করতে থাকেন, তা হলে দেখবেন গঙ্গার পাড়ে লাইন লেগে গিয়েছে আপনাদের তর্পণ করার জন্য। তাই বলছি, এখন থেকে শুধরে যান। আমাদের কোনও রকম উত্তেজিত করবেন না।‘

এদিন ৩ নম্বর কল্যাণী শহর মণ্ডলের পক্ষ থেকে ‘আর নয় অন্যায়’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে কল্যাণীর ঘোষপাড়ায় এক সমাবেশের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘ আমাদের বিভিন্ন ভাবে বাধা দিচ্ছে শাসক দল। অন্যায় ভাবে বিজেপি কর্মী-সমর্থক ও নেতাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছে তৃণমূল। কোনও সহযোগিতা নেই। বিজেপি ২১শে সরকার গঠন করবেই। ক্ষমতায় আসার পর পশ্চিমবঙ্গ থেকে ধর্ষণ কথাটি উঠে যাবে।‘

তিনি আরও বলেন, ‘রাজ্যের পুলিশ দলদাসে পরিণত হয়েছে। তাদের দেখলে কটু কথা বলে আমজনতা। বিজেপি সরকার গঠন করার পর পুলিশ-প্রশাসনের চেহারাই পাল্টে যাবে। আমজনতা তাদের দেখলে বাহবা দেবে।‘ এরপর তর্পণ নিয়ে নাম না করে তৃণমূলের উদ্দেশে ওই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, ‘আগামী মে মাসে বিধানসভা ভোটের ফল বের হবে। আর জুন মাসে আমরা বিজেপি সরকার গঠন করব। যদি বাড়াবাড়ি করতে থাকেন, তা হলে দেখবেন গঙ্গার পাড়ে লাইন লেগে গিয়েছে আপনাদের তর্পণ করার জন্য।‘

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here