নিজস্ব প্রতিবেদক, সিউড়ি: লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে ফের জমি ফেরতের দাবি তুলে আন্দোলনে নামার ইঙ্গিত দিল শিবপুরের জমি হারা কৃষকদের সংগঠন। বীরভূম জেলার বোলপুর মহকুমার শ্রীনিকেতন ব্লকের শিবপুরে বাম জমানায় ৩০০ একর জমি অধিগৃহীত হয়েছিল শিল্পপার্ক করার জন্য। কিন্তু ২০০২ সালে অধিগৃহীত সেই জমিতে কোনদিনই শিল্প গড়ে ওঠেনি। বাম জমানাতেই তাই দাবি উঠেছিল অধিগৃহিত হওয়া জমি ফেরত দিক সরকার। বাম জমানার শেষদিকে তৎকালীন বিরোধী দল তৃণমূল কংগ্রেসের তরফ থেকেও বার্তা দেওয়া হয় কৃষকদের যে, তারা ক্ষমতায় এলে শিবপুরের অধিগৃহীত জমি ফেরত দেওয়া হবে কৃষকদের। যদিও ২০১১ সালে পরিবর্তনের পরে নতুন সরকার ক্ষমতায় এসে জানিয়ে দেয় শিবপুরের অধিগৃহীত জমিতে শিল্পই হবে। যদিও পরিবর্তনের ৭ বছর পরেও সেখানে কোন শিল্প গড়ে ওঠেনি। উল্টে জমি ফেরতের দাবি তুলে শিবপুরে কৃষকদের আন্দোলন ক্রমশ জমাট বাঁধছে।

মঙ্গলবার শিবপুরের কৃষকদের সংগঠন ‘শিবপুর জমিহারা কৃষক সংগ্রাম মঞ্চ’র তরফ থেকে সিউড়িতে জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে মিছিল করে গিয়ে অতিরিক্ত জেলাশাসককে স্মারকলিপি প্রদান করে। ওই সংগঠনের দাবি অধিগৃহীত জমিতে শিল্প না হলে তাদের জমি ফেরত দিয়ে দেওয়া হোক। তারা এটাও দাবি করেছেন যে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব অধিগৃহীত জমি বেআইনি পথে বিক্রি করে দিচ্ছে। তাই শিল্প নাক হওয়া জমি তাদেরকে ফেরত দিয়ে দেওয়া হোক। যদিও কৃষক সংগ্রাম মঞ্চের দাবি নস্যাৎ করে জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের তরফে জানানো হয়েছে সরকারের হাতে থাকা অধিগৃহীত জমি বেআইনি পথে কেউ বিক্রি করতে পারে না। ইচ্ছাকৃত ভাবে অশান্তি ছড়ানোর লক্ষ্যে এ সব কথা প্রচার করা হচ্ছে। তারা এটাও জানান, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শিবপুরের অধিগৃহীত জমিতে বিশ্ববাংলা বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার কথা ঘোষনা করেছেন। ওখানে বিশ্ববিদ্যালয়ই হবে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here