নিজস্ব প্রতিবেদক, আসানসোল: সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে ঘন্টায় ২০০ কিলোমিটার গতিবেগ সম্পন্ন রেল ইঞ্জিন তৈরি করে নজির গড়ল চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানা। ইতিমধ্যে ইঞ্জিনটি ট্রায়াল রানে পাঠানো হয়েছে। ভারতে এই প্রথম দেশীয় প্রযুক্তিতে ঘন্টায় ২০০ কিলোমিটার গতিবেগ সম্পন্ন রেল ইঞ্জিন তৈরি হল এবং এটি নির্ধারিত গতিবেগেই ছুটবে বলে দাবি চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানা কর্তৃপক্ষের।

জানা গিয়েছে, সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ২০০ কিলোমিটার গতিবেগ সম্পন্ন রেল ইঞ্জিন WAP5 অত্যাধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন। অন্যান্য ইঞ্জিনের তুলনায় উন্নতমানের এই ইঞ্জিনটির ওজন যথেষ্ট কম। এর কাঠামোতেও বদল আনা হয়েছে। তবে বিদেশি প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়নি। অন্যান্য ইঞ্জিনের তুলনায় WAP5-এ বিদ্যুত্ সাশ্রয়ও হবে বলে দাবি চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানা কর্তৃপক্ষের।

প্রসঙ্গত, চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানার দ্রুত গতির ইঞ্জিন তৈরির ঘটনা অবশ্য এটাই প্রথম নয়। এর আগে ঘন্টায় ১৮০ কিলোমিটার গতিবেগ সম্পন্ন ইঞ্জিন WAP7 তৈরি করে নজির গড়েছিল চিত্তরঞ্জন রেল কারখানার। সেটিও সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এবং বিদ্যুত্ খরচও কম হয়। এই দুটি ইঞ্জিন রাজধানী, দুরন্ত, শতাব্দী-র মত দ্রুতগতির দূরপাল্লার ট্রেনগুলিতে ব্যবহার করা হবে বলে সূত্রের খবর। এর ফলে খুব কম সময়ে নিজের গন্তব্যে পৌঁছবে ট্রেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here