ডেস্ক: স্ত্রী সন্তানসম্ভবা, তাই বৌদির সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়লেন স্বামী। এর জেরেই প্রাণ খোয়ালো দেড় মাসের পুত্রসন্তান। সন্তান জন্মানোর পরও বৌদির প্রতি আসক্তি কিছুতেই কাটছিল না। নিয়ম করে বৌদির সঙ্গে যৌনতায় মত্ত হতেন ওই ব্যক্তি। স্ত্রী তার প্রতিবাদ করায় রাগ গিয়ে পড়ল পুত্র সন্তানের উপর। মাথায় ভারী বস্তু দিয়ে আঘাত করে খুনের অভিযোগ উঠল ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এখানেই শেষ নয়। স্ত্রীকে জোর করে কেরোসিন খাইয়ে মারতেও সক্রিয় হন ওই অভিযুক্ত স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার লেদার কমপ্লেক্স থানার কাঁটাতলা এলাকায়।

গত বছর হাড়োয়ার বাসিন্দা পূজাকে বিয়ে করেছিলেন সাধু দোলুই। মাস দেড়েক আগেই জন্মায় তাদের পুত্র সন্তান। ওইদিন স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির সময় সাধু ভারী কোনও বস্তু দিয়ে ছেলের মাথায় আঘাত করে। আর তাতেই মৃত্যু হয়েছে ওই শিশু পুত্রের। পূজা পুলিশকে অভিযোগ করেন ইদানিং বৌদির সঙ্গে তাঁর স্বামীর ঘনিষ্ঠতা ক্রমশ বেড়েই যাছিল। তাই পূজা সেদিন মাথা ঠিক রাখতে না পেরে প্রতিবাদে মুখর হয়ে ওঠে। আর তাতেই তার কপালে জোটে মার ও লাঞ্ছনা। বর্তমানে হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে করছে পূজা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here