kolkata news
Parul

মহানগর ডেস্ক: ৫ হাজার টাকার ঋণ। তা মেটাতেই আড়াই বছরের মেয়েকে বিক্রি করে দিল বাবা। এমন হৃদয়বিদারক ঘটনা ঘটেছে উড়িষ্যার জজপুর জেলায়। শিশুটির দাদু রবীন্দ্র বারিক তাঁর ছেলে রমেশ কুমার বারিক এবং লিটু জেনা এই দুই ব্যক্তির নামে শিশু বিক্রির অপরাধে এফ আই আর দায়ের করেছেন। এর পরই গোটা ঘটনা প্রকাশ্যে আসে।

ads

সূত্রের খবর অনুযায়ী, রমেশ কুমার বারিক ৫ হাজার টাকা ধার নিয়েছিল সহদেবপুর গ্রামের বাসিন্দা লিটু জেনার থেকে। অর্থনৈতিক টানাপোড়েনের কারণে সময় মত টাকা ফেরত দিতে পারেনি রমেশ। এদিকে রমেশ মাত্রাতিরিক্ত নেশা করে স্ত্রীর উপর অত্যাচার করত। সেই কারণে তাঁকে ছেড়ে চলে গিয়েছেন তাঁর স্ত্রী। ছোট শিশুটি রমেশের কাছেই থাকত। অন্যদিকে পাওনাদার লিচু প্রায়শই টাকা চাইতে আসতেন। একদিন নেশার খেয়ালে টাকা দিতে না পেরে ছোট শিশুটিকে পাওনাদারের হতে তুলে দেয় সে।

এই বিষয়ে অ্যাডিশনাল ডিআইজি যশোবন্ত জেঠুয়া জানিয়েছেন,’এটা সত্যি শিশুটির বাবা ৩ কিংবা ৫ হাজার টাকা ধার নিয়েছিল। শিশুটির মা চলে যাওয়ার পর রমেশ তাঁর শশুরকে জানিয়েছিল। সে শিশুটির সেবাটি দেখাশোনা করতে পারছে না। অন্যদিকে লিটুর পরিবার ছিল। সেই কারণেই তাঁদের হাতে তুলে দিয়েছিল।’ জেলা শিশু সংরক্ষক অফিসার নিরঞ্জন কর জানিয়েছেন,’ আমরা বাচ্চাটিকে সেখান থেকে নিয়ে এসেছি। আমরা চেষ্টা করছি কোন সুরক্ষিত জায়গায় বাচ্চাটিকে রাখার জন্য।’ পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here