kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, ভাঙড়: ডিউটি থেকে বাড়ি ফেরার পথে ভাঙড়ে মদ‍্যপ যুবকদের হাতে আক্রান্ত হলেন কলকাতা পুলিশের এক মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ার। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কলকাতা পুলিশের কসবা থানার সিভিক ভলান্টিয়ার জাহিদা খাতুন ডিউটি শেষে ভাঙড়ের চকমরিচায় বাড়ি ফিরছিলেন। বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে কয়লাঘাটা ব্রিজের মুখে তাঁর পথ আটকায় কয়েকজন যুবক। নিজেকে সিভিক ভলান্টিয়ার বলে পরিচয় দিলেও ওই যুবকরা তাঁর পথ আটকে রাখে। শুরু হয় বচসা। অভিযোগ, ওই যুবকরা মদ‍্যপ অবস্থায় তার ওপরে চড়াও হয়। তাঁর মাথায় বাঁশ দিয়ে আঘাত করা হয়। মাথা দিয়ে রক্ত ঝরতে থাকে। ডাকাবুকো ওই তরুণী আত্মরক্ষার্থে লাঠি দিয়ে তাদের ওপরে ঝাঁপিয়ে পড়েন। এরই মধ্যে স্থানীয়রা ছুটে এসে ওই মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ারকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

ঘটনার খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ভাঙড় এবং কাশীপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। এবিষয়ে আক্রান্ত কলকাতা পুলিশের মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ার জাহিদা খাতুন কয়েকজনের নামে ভাঙড় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার তদন্তে নেমে মূল অভিযুক্ত বিবিরআইটের বাবলু মোল্লা নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে ভাঙড় থানার পুলিশ।

স্থানীয় এক যুবক বলেন, কয়লাঘাটা ব্রিজে অবৈধ ভাবে ঢোল আদায়ের বিরোধিতা করে বিবিরআইট এবং ঘোঁজেরমাঠের কয়েকজন যুবক এদিন ব্রিজে বাঁশ বেঁধে দেয়। সেই সময় ওই ব্রিজের ওপর দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তরুণী সিভিক ভলান্টিয়ার। কিন্তু ব্রিজে বাঁশ বাঁধা থাকায় তিনি বাড়ি ফিরতে পারছিলেন না। তিনি প্রথমে নিজেকে পুলিশকর্মী বলে পরিচয় দিলেও তার রাস্তা আটকে রাখা হয়। তার পর বচসা থেকে হাতাহাতি শুরু হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here