ডেস্ক: ‘মিটু’ ঝড়ের দাপটে বেসামাল হয়ে পড়েছিল বলিপাড়ার একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রীর ভাবমূর্তি৷ শুধু মাত্র প্রভাবশালী অভিনেতারাই নন, এই ট্যাগ পড়েছিল একাধিক পরিচালক, প্রযোজক, কোরিওগ্রাফার এমনকি কাস্টিং ডিরেক্টরের ওপরেও৷ বাদ পড়েননি রাজকুমার হিরানীর নামও৷ হ্যাঁ, পরিচালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন তাঁরই টিমের এক মহিলা ক্রিউ মেম্বার৷ এরপর নেটদুনিয়ায় তাঁকে দীর্ঘদিন ধরেই সমালোচনায় বিদ্ধ করা হয়৷

 

যদিও এইসবের মধ্যেও তাঁর পাশে দাঁড়ায় বলিপাড়ার একাংশ৷ এমনকি তিনি নিজেও একটি সাক্ষাৎকারে জানান, আমিা অভিযোগটি শুনে কার্যত অবাক হয়ে পড়েছিলাম৷ আমি কখনই কোন মহিলার সঙ্গে আপত্তিকর কিছু করিনি৷ আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্যই এরকম অভিযোগ আনা হয়েছে৷

শুধু তাঁর বক্তব্যের ওপর ভিত্তি করেই নয়, সঠিক তথ্যপ্রমান না মেলায় পরিচালককে এবার ক্লিনচিট দিল ফেডারেশন অফ ইণ্ডিয়ান চেম্বার অফ কমার্স এণ্ড ইন্ডাস্ট্রি(FICCI)৷ সম্প্রতি তাঁকে নাকি একটি আলোচনা সভাতে আমন্ত্রণ করা হয়েছে, যেখানে তিনি যুবসমাজের জন্য মোটিভেশন্যাল স্পিচ দিতে আসবেন৷ ফিকি-র পক্ষ থেকে জানানো হয়, রাজকুমার হিরানী বিরুদ্ধে এমন কোন শক্তিশালী প্রমান নেই৷ ফলে সমস্ত অভিযোগই ভিত্তিহীন৷ রাজকুমার অত্যন্ত ভদ্র এবং স্বচ্ছ ভাবমুূর্তির ব্যক্তিত্ব৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here