kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিধাননগর: দিকে করোনার দাপট। অন্যদিকে আমফানের তাণ্ডবের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত বহু এলাকার অধিকাংশ স্কুল। এমন পরিস্থিতিতে কবে স্কুল খুলবে তা নিয়ে বড় প্রশ্নচিহ্ন দেখা দেয়। বিষয়টি নিয়ে আজ শিক্ষামন্ত্রী দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত স্কুল বন্ধ রাখার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্কুল এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলি, তাতে তাদের সেই সিদ্ধান্তে সরকার হস্তক্ষেপ করবে না।

এর পাশাপাশি বিভিন্ন জেলার সঙ্গে কথা বলে ছাত্রছাত্রীদের তালিকা তৈরি করে স্থানীয় ভাবে শিক্ষক-শিক্ষিকারা যারা নিজে থেকে পড়াতে চান তারা পড়াতে পারেন। অন্যদিকে ২৯, ০২ ও ০৬ তিন দিন উচ্চমাধ্যমিকের পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা আছে। সেই অনুযায়ী পরীক্ষা হবে। এবং যেহেতু অধিকাংশ স্কুল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তার জন্য বিকল্প সেন্টার খোঁজার কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই একটি রিপোর্ট রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পাঠানো হয়েছে এবং কোনও ছাত্র-ছাত্রী যাদের বইয়ের সংকট আছে, তারা অবিলম্বে সরকারের দ্বারস্থ হলে সরকার ব্যবস্থা নিয়ে তাদের বই প্রদান করবে। এদিন বৈঠক শেষে এমনটাই জানালেন জানালেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

অন্যদিকে, এখনও পর্যন্ত বেশকিছু বেসরকারি স্কুল তারা তাদের স্কুলের পড়ুয়াদের ফি এবং বাস ভাড়া নিচ্ছে বলে অভিযোগ। বিষয়টি নিয়ে তাদের সেই সব স্কুলের কাছে পুনরায় শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় অনুরোধ করেছেন যে, তারা যাতে মানবিক দিক থেকে বিষয়টি নিয়ে ভাবনাচিন্তা করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here