FotoJet-2019-04-24T192228.756

ডেস্ক: নির্বাচনী সভায় দাঁড়িয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে কমিশনের তোপের মুখে পড়লেন তৃণমূল নেত্রী রত্না ঘোষ। অন্যদিকে থানায় ঢুকে পুলিশকে হুমকি ও গালিগালাজ করার অভিযোগে বাবুল সুপ্রিয়র বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর দায়ের করা হল। পাশাপাশি তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্রকে অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ করার জন্য উত্তর নদিয়ার বিজেপি সভাপতি মহাদেব সরকারকে শোকজ করল কমিশন।

কর্মিসভায় দলীয় কর্মীদের রাজনীতির পাঠ পড়াতে গিয়ে মন্ত্রী তথা নদিয়া জেলার সংগঠনের দায়িত্বে থাকা তৃণমূল নেত্রী রত্না ঘোষ কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঝাঁটা দিয়ে তাড়া করার কথা বলেন। এরকম মন্তব্য করার জেরে তাঁকে শোকজ করল নির্বাচন কমিশন। সেদিন মহিলাদের উদ্দেশ্যে নিদান দিয়ে রত্না বলেন, ‘আপনারা সকলে ২০১৬-তেও কেন্দ্রীয় বাহিনীর আক্রমণ সহ্য করেছেন। আর এবারেও তাই করছেন। কিন্তু একদম ভয় পাবেন না। যদি মনে করেন কেন্দ্রীয় বাহিনী বাড়াবাড়ি করছে তাহলে আপনারা ঝাঁটা হাতে তেড়ে গিয়ে এলাকা ছাড়া করবেন কেন্দ্রীয় বাহিনীকে।’ তাঁর এহেন মন্তব্যের পরেই গর্জে ওঠেন বিরোধীরা। বিরোধীরা তাঁর বিরুদ্ধে কমিশনে অভিযোগ জানান।

শুক্রবার বিজেপির কুলটি মণ্ডলের সাধারণ সম্পাদক রাজু যাদবের বাড়িতে ভাঙচুর করার অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে। এছাড়া মহিলাদের নিগ্রহ করারও অভিযোগ ওঠে। এরপর সেদিনই প্রায় ৫০ জন মহিলাকে সঙ্গে নিয়ে বরাকর ফাঁড়ি ঘেরাও করেন আসানসোলের বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি থানায় ঢুকে আইসি রবীন্দ্রনাথ দলুইকে ধমক দেন। পাশাপাশি তিনি গালিগালাজ করেন বলেও অভিযোগ ওঠে। যার জেরে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে থানায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here