kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: চিকিত্সকদের ধর্মঘটের জেরে এসএসকেএম, এনআরএস, মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সহ সমগ্র রাজ্যে ধুন্ধুমার চলছে। এর মধ্যে বুধবার গভীর রাতে ভয়াবহ আগুন লাগল কলকাতার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হস্টেলে। বাইরে থেকে কেরোসিন বোমা ছোঁড়ার জেরেই আগুন লেগেছে বলে হস্টেলবাসীর অভিযোগ। যদিও কোনও প্রাণহানি হয়নি। দমকল বাহিনীর তত্পরতায় কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, লিন্টন স্ট্রিটে অবস্থিত ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজের পড়ুয়াদের হস্টেলটি চারতলায়। হস্টেলবাসীর অভিযোগ, বুধবার রাত দেড়টা নাগাদ একদল দুষ্কৃতী হস্টেল লক্ষ্য করে কেরোসিন বোমা ছুড়ে পালায়। সাম্প্রতিক এনআরএস কাণ্ডের জেরে রাজ্য জুড়ে জুনিয়র ডাক্তারদের যে বিক্ষোভ চলছে, সেই কারণেই হস্টেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে তাঁদের দাবি। বোমা ছোঁড়ার সঙ্গে সঙ্গে হস্টেলের একতলার দুটি ঘরে আগুন লেগে যায়। তবে ঘর দুটি খালি থাকায় কোনও প্রাণহানি হয়নি। হস্টেলের জুনিয়র ডাক্তার এবং স্থানীয় বাসিন্দারাই প্রথমে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। তারপর দমকলের দুটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে তত্পরতার সঙ্গে আগুন নেভায়। আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে পুলিশ বা দমকল বাহিনী এখনও কিছু জানায়নি। তাই বোমাবাজির কারণেই হস্টেলে আগুন লেগেছে কিনা সে বিষয়ে সিলমোহর দেয়নি প্রশাসন। তদন্ত শুরু হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, বুধবার দুপুরে উইকেট হাতে কয়েকজন বহিরাগত হস্টেলে এসে হুমকি দেয় বলে অভিযোগ। সিসিটিভিতে ধরাও পড়েছে সেই ছবি। এই ঘটনায় বেনিয়াপুকুর থানায় অভিযোগও দায়ের হয় এবং হস্টেলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পুলিশের বেড়াজাল সত্ত্বেও কে বা কারা, কীভাবে হস্টেলে বোমা ছুঁড়ল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here