মহানগর ওয়েবডেস্ক: ভোর রাতে আগুন লাগল উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজের সিসিইউ বিভাগে। সূত্রের খবর, আগুনে দম বন্ধ হয়ে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। ইতিমধ্যেই দমকলের তিনটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুনকে নিয়ন্ত্রণে এনেছে। আগুন লাগার কারণ এখনও অজানা।

এদিন ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ আচমকাই ছুটোছুটি পড়ে যায় মেডিক্যাল কলেজের সিসিইউ বিভাগে। আগুন লাগার সময় সেখানে ১০ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন বলে খবর। সঙ্গে সঙ্গে রোগীদের উদ্ধার কাজ শুরু করেন হাসপাতালের কর্মীরা। সেই সময়ই এক রোগীর মৃত্যু হয়। মৃতের নাম সাবেরা খাতুন। স্বাস্থ্য কর্মীরা রোগীদের সিসিইউ থেকে বের করার সময় লাইফ সাপোর্ট খুলতে হয়েছিল, সেই কারণেই ওই মহিলার মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে তা স্বীকার করেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে সিসিইউতে ভর্তি ৫ জনকে অন্য হাসপাতালে এবং ৪ জন ওই হাসপাতালের অন্য বিভাগে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। কীভাবে আগুন লেগেছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। দমকল আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও আতঙ্কের রেশ কাটিয়ে উঠতে পারেননি রোগীরা।

কীভাবে আগুন লাগল তা জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে প্রাথমিক অনুমান, শর্ট সার্কিটের কারণে একটি ভেন্টিলেটর থেকে আগুন লেগেছে। পাশাপাশি সিসিইউতে থাকা অক্সিজেন সিলিন্ডার আগুনকে আরও দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে দিতে সাহায্য করে। এই প্রসঙ্গে উত্তরবঙ্গের উন্নয়ন মন্ত্রী গৌতম দেব জানান, ‘হাসপাতালে পর্যাপ্ত অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা রয়েছে। তা সত্ত্বেও কীভাবে আগুন লাগল, তা খতিয়ে দেখা হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here