kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, বহরমপুর: রবিবার মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আবু তাহের খানের সমর্থনে রানীনগরে এক নির্বাচনী জনসভায় নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে সরব হলেন কলকাতার মহানাগরিক তথা রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। ওই সভা থেকে তিনি নির্বাচন কমিশনের পক্ষপাতিত্ব নিয়ে আঙুল তোলেন।

তিনি বলেন, ‘বড়বড় কথা বলে নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব পালন করা যায় না। দায়িত্ব নিয়ে দায়িত্ব পালন করতে হয়, সেটা নির্বাচন কমিশন করছে না। ইভিএম বিকল হচ্ছে কার স্বার্থে? স্মৃতি ইরানি মিথ্যা হলফনামা দিয়েছে, যোগী আদিত্যনাথ সেনা মোদির সেনা বলে দাবি করেছে, এরাজ্যের বিজেপি সভাপতি এবং বিজেপি প্রার্থী অস্ত্র নিয়ে মিছিল করেছে তবু্ও নির্বাচন কমিশন নির্বিকার, অন্ধ ধৃতরাষ্ট্র হয়ে বসে আছে। নির্বাচন কমিশন যাই করুক পশ্চিমবঙ্গের মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আছে। তাই এবার বাংলায় বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ, আর কেন্দ্রে বিজেপি হবে ফিনিশ।’

রানীনগর বাজার সংলগ্ন ফুটবল মাঠে ছিল ওই নির্বাচনী জনসভা। জনসভায় ফিরহাদ হাকিম ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রার্থী আবু তাহের খান, জলঙ্গীর বিধায়ক আব্দুর রাজ্জাক, লালবাগের বিধায়ক শাওনি সিংহ রায়, দলের জেলা মুখপাত্র অশোক দাস প্রমুখ।

ওই সভা থেকে ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘সিপিএম আর কংগ্রেস হল বিজেপির মদতদাতা। সাম্প্রদায়িক বিজেপিকে উৎখাত করতে বিকল্প শুধু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই মুর্শিদাবাদের তিনটি লোকসভাতেই তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীদের জিতিয়ে বাংলায় বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ করতে হবে।চৌকিদার এবার ইমানদার চৌকিদার সেজেছে। নোট বন্দী, জিএসটি করে সাধারন মানুষকে কষ্ট দিয়েছে মোদী সরকার। বিদেশ থেকে কালো টাকা উদ্ধারের নামে মানুষের সঙ্গে ভাঁওতাবাজি করেছে। কালো টাকা উদ্ধার তো দূরের কথা এই স্বঘোষিত ইমানদার চৌকিদার নিরব মোদী, মেহুল জোশি, বিজয় মালিয়াদের দিয়ে দেশের টাকা বিদেশে পাচার করেছে। এই সরকারকে উৎখাত করতে বিকল্প শুধু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here