sports news

Highlights

  •  তাইকন্ডোতে অনন্য মুন্সিয়ানা দেখিয়ে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নিজের নাম তুলে নিল হায়দরাবাদের আসমান তানেজা
  • বয়স তার মাত্র পাঁচ
  • টানা এক ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশিবার ফুল কন্টাক্ট নি স্ট্রাইক (হাঁটু দিয়ে মারা) করে বিশ্বরেকর্ড গড়ল সে

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: তাইকন্ডোতে অনন্য মুন্সিয়ানা দেখিয়ে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নিজের নাম তুলে নিল হায়দরাবাদের আসমান তানেজা। বয়স তার মাত্র পাঁচ। এই বয়সেই টানা এক ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশিবার ফুল কন্টাক্ট নি স্ট্রাইক (হাঁটু দিয়ে মারা) করে বিশ্বরেকর্ড গড়ল সে। এক ঘণ্টায় ১২০০টিরও বেশি নি স্ট্রাইক করেছে সে। আর এই কারণেই গিনেস বুকে জায়গা পেয়ে ভারতের নাম উজ্জ্বল করল হায়দরাবাদের এই খুদে।

বেশ অল্প বয়স থেকেই তাইকন্ডোর পাঠ নেওয়া শুরু আসমানের। কিন্তু মাত্র পাঁচ বছরেই সে এমন মুন্সিয়ানা দেখিয়েছে, যা করতে বছরের পর বছরের অনুশীলন দরকার আর পাঁচজন সাধারণ খেলোয়াড়ের। বিস্ময় বালক আসমান ইতিমধ্যেই আমেরিকায় গিয়ে ওয়ার্ল্ড তাইকন্ডো প্রতিযোগিতায় রুপোর পদকও জিতে এসেছে।

আসমানের বাবা আশিস তানেজা জানান,

‘আমার ছেলে অনেক দিন ধরেই এই বিশ্বরেকর্ড করার চেষ্টা করছিল। আমার মেয়েও তাইকন্ডো করে এবং দিদিকে দেখেই আসমান অনুপ্রেরণা পায়। এত অল্প বয়সে এই রেকর্ড আর কেউ করে দেখাতে পারেনি। এখন আসমান আরও একটি বিশ্বরেকর্ড গড়ার জন্য অনুশীলন করছে। আমাদের আশা ও সেটাতেও সফল হবে।’

অনন্য নজির গড়েও কিছুটা নির্বিকার আসমান নিজে জানায়,

‘আমার দিদিরও দুটি বিশ্বরেকর্ড রয়েছে। ওর দেখাদেখি আমিও বিশ্বরেকর্ড গড়তে চেয়েছিলাম। আমার দিদিই আমার অনুপ্রেরণা।’

প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বর মাসেও বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন কর্ণাটকের হুব্বালির ১৪ বছরের ওজাল নালাভাদে। চোখ বাঁধা অবস্থায় ৫১ সেকেন্ডে ৪০০ মিটার স্কেটিং করে গিনেস বুকে নাম তুলেছিল সে। এর আগে দুবার চেষ্টা করে সফল না হলেও, তৃতীয়বার সফল হয় ওজাল নালাভাদে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here