kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনা আতঙ্কের জেরে আইপিএল আয়োজন নিয়ে টালবাহানা বেশ কিছুদিন ধরেই চলছিল। এর মধ্যে কেন্দ্রের কড়া ভিসা নীতির ফলে আইপিএলে বিদেশি খেলোয়াড়দের অংশগ্রহণ নিয়েও সংশয় দেখা দিয়েছিল। আর এর পরেই বৃহস্পতিবার ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডকে এখন আইপিএল আয়োজন না করার পরামর্শ দিল বিদেশ মন্ত্রক। যদিও শেষ সিদ্ধান্ত আয়োজকদের ওপরই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কার মধ্যেই আইপিএল আয়োজন উচিত হওয়া সম্পর্কে বিদেশমন্ত্রক থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয় যে, এই মুহূর্তে আইপিএল আয়োজন না করাই উচিত। কারণ আইপিএলের ম্যাচের সময় প্রচুর মানুষ খেলা দেখেন। সেক্ষেত্রে সংক্রমণের আশঙ্কা বেড়ে যায়। যদিও আইপিএল আয়োজন হবে কিনা সেই বিষয়ে কোনও ‘নির্দেশ’ বিসিসিআইকে দেবে না বিদেশমন্ত্রক। তারা স্রেফ পরামর্শ দিচ্ছে।

করোনা আতঙ্ক ক্রমশ গ্রাস করছে গোটা বিশ্বকে। একে একে এর কবলে পড়ছেন বিশ্বের নানা প্রান্তের অগণিত মানুষ। ভারতেও নিজের ত্রাস বিস্তার করছে এই মারণ ভাইরাস। শেষ পাওয়া খবরে, ভারতে এখন পর্যন্ত ৭৩ জনের শরীরে এই ভাইরাসের খোঁজ মিলেছে। একই সঙ্গে গতকালই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) একে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করে উদ্বেগ বাড়িয়েছে। অন্যদিকে, ভারতের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে গতকালই আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত ট্যুরিস্ট ভিসা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

উল্লেখ্য,ইতিমধ্যেই করোনা নিয়ে কেন্দ্রের যুবকল্যাণ ও ক্রীড়ামন্ত্রকের নির্দেশিকা পেয়ে গিয়েছে ইন্ডিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন (আইওসি), বিসিসিআই, অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন সহ দেশের প্রতিটি স্বীকৃত স্পোর্টস সংস্থা৷ সেখানে পরিস্কার বলা হয়েছে যে, বৃহৎ আকারের জন সমাবেশ থেকে ব্যহত থাকতে৷

আগামী ১৮ মার্চ চলতি ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও অন্তিম ম্যাচটি হবে কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে৷ এই মাঠে একসঙ্গে ৬৮০০০ দর্শক বসে খেলা দেখতে পারেন৷ কিন্তু ক্রীড়ামন্ত্রকের নির্দেশিকা পাওয়ার পর সেই ম্যাচ দর্শকশূন্য অবস্থায় হতে পারে। একই ভাবে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন ফাঁকা স্টেডিয়ামেই ডার্বি ম্যাচ আয়োজন করার কথা ভাবতে পারে৷ ডার্বির জন্য মুখিয়ে থাকে কলকাতার ফুটবলপ্রেমিরা৷ কিন্তু এবারের ডার্বির ঝাঁঝ আগেই অনেকটা কমে গিয়েছিল৷ কারণ ইস্টবেঙ্গলের চির প্রতিদ্বন্দ্বী মোহনবাগান চার ম্যাচ বাকি থাকতেই ভারতসেরা হয়ে গিয়েছে৷ ফলে বড় ম্যাচ এমনিতেই অনেকটা নিস্পৃহ৷ শুধু কলকাতা ডার্বিই নয়, আগামী শনিবার গোয়ার ফতোর্দা স্টেডিয়ামে আইএসএল ফাইনালও হতে পারে বন্ধ দরজায়৷ শিরোপা নির্ধারক ম্যাচে মুখোমুখি হবে অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা ও চেন্নাইয়িন এফসি৷

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here