national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: অপেক্ষার অবসান। রাজ্যসভার সদস্য হিসেবে শপথগ্রহণ করলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের অনুমোদনে সংসদের উচ্চকক্ষ তথা রাজ্যসভায় মনোনীত হয়েছেন তিনি। রাজ্যসভায় তাঁকে ১৩১ নম্বর আসন দেওয়া হয়েছে। রঞ্জন গগৈয়ের এই সদস্যতা নিয়ে তীব্র বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে দেশের রাজনৈতিক মহলে। এই বিতর্কের মধ্যেই আজ রাজ্যসভায় শপথ নিলেন রঞ্জন গগৈ।

সু্প্রিম কোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ শপথ নিতে উঠলে ‘লজ্জা’, ‘লজ্জা’ বলে আওয়াজ তোলে কংগ্রেস এবং সমাজবাদী পার্টির সাংসদরা। প্রবল বিরোধিতায় রাজ্যসভা থেকে ওয়াকআউটও করে তারা। তাদের এই প্রতিবাদে সামিল হয় বামফ্রন্ট, ডিএমকে, এমডিএমকেও। উল্লেখ্য, রাজ্যসভার সদস্য হওয়া নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই মুখ খুলেছিলেন রঞ্জন গগৈ। জানিয়েছিলেন, ‘আমাকে আগে শপথ নিতে দিন, তারপর আমি এই সিদ্ধান্ত কেন নিলাম সেই সম্পর্কে সবটা জানাব।’ এই মন্তব্য করে তিনি যে কৌতূহল বহাল রেখেছিলেন। এখন সকলের অপেক্ষা রঞ্জন গগৈ মুখ খুলে ঠিক কী বলেন।

রঞ্জন গগৈ ২০০১ সালে গুয়াহাটি হাইকোর্টের বিচারপতি হিসেবে জুডিশিয়াল সার্ভিসে কাজ শুরু করেন। ২০১০ সালে তিনি পঞ্জাব এবং হরিয়ানায় বদলি হন। ২০১২ সালের ২৩ এপ্রিল তাঁকে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি পদে উন্নিত করা হয়। ২০১৮ সালের ৩ অক্টোবর দেশের ৪৬তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন তিনি। প্রধান বিচারপতি থাকাকালীন তিনি গুরুত্বপূর্ণ কিছু মামলার রায় দেন। সেই মামলাগুলির মধ্যে অন্যতম প্রধান ছিল অযোধ্যা মামলার রায়। বিরোধীদের দাবি, এই মামলার রায়ের ‘পুরস্কার’ হিসেবেই তাঁকে রাজ্যসভায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here