ডেস্ক: পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগেই বড় ধাক্কা খেল বাংলার গেরুয়া শিবির। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার মাত্র ৬ মাসের মধ্যেই রাগে দল ছেড়ে বেরিয়ে এলেন রায়গঞ্জ পুরসভার চেয়ারম্যান সন্দীপ বিশ্বাস ঘনিষ্ঠ পবিত্র চন্দ।

মাসছয়েক আগেই রায়গঞ্জে পুরসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে কংগ্রেসের ঘর ভেঙে দল ছাড়েন জেলা কংগ্রেস সভাপতি মোহিত সেনগুপ্তর বেশ কয়েকজন অনুগামী। তাদের মধ্যে সন্দীপ বিশ্বাস তৃণমূলে গিয়ে রায়গঞ্জ পুরসভার চেয়ারম্যান হন। মোহিতবাবুর আরেক অনুগামী হিসাবে পরিচিত পবিত্র চন্দ যোগ দেন বিজেপিতে। কিন্তু মাত্র ৬ মাসে বিজেপি প্রীতি ও মোহ দুইই ভেঙে গেল পবিত্রবাবুর, এবং শেষমেষ দলত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে ইতিমধ্যেই পদত্যাগ পত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি।

কিন্তু মাত্র ৬ মাসে কেন দল ছাড়লেন পবিত্রবাবু? সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, কোনও কথাই রাখেনি বিজেপি। পবিত্র চন্দের দাবি, তিনি যোগ দেওয়ার সময় বিজেপি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল রায়গঞ্জে উন্নয়ন হবে। বিজেপির তরফে এমন দাবিও করা হয়েছিল যে রায়গঞ্জে নতুন ট্রেন দেওয়া হবে, সেসব কিছুই হয়নি। এই কারণেই যোগ দেওয়ার ৬ মাসের মধ্যেই গেরুয়া শিবির ত্যাগ করলেন তিনি।

পবিত্র চন্দ বিজেপি ছাড়ার খবর চাউর হতেই তাঁকে দলে ফেরত পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছে কংগ্রেস। যদিও পবিত্রবাবু কংগ্রেসে ফিরবেন কিনা সেকথা খোলসা করে বলেন নি তিনি। আপাতত সমাজ সেবার কাজে মনোনিবেশ করতে চান বিজেপি ত্যাগী এই নেতা। সভাপতি মোহিত সেনগুপ্ত অবশ্য তাঁকে দলে ফিরে পেতে আগ্রহী। ঘরের ছেলেকে ঘরেই ফিরে পেতে চাই, এমনটাই বক্তব্য কংগ্রেস জেলা সভাপতির।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here