ডেস্ক: ভাগাড় কাণ্ডে নয়া মোড়। ভাগাড়ের পচা মাংস পাচারের অভিযোগে আটক করা হল মানিক মুখোপাধ্যায় নামে প্রাক্তন এক বাম কাউন্সিলরকে। ১৯৯০ সাল থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত গয়েশপুর পুরসভার কাউন্সিলর ছিলেন তিনি। পরে কল্যানির ধাপার দায়িত্ব নেন। সেখান থেকে অবসর নেওয়ার পরও ওই ধাপার পুরো দায়িত্ব সামলাতেন তিনি।

ভাগাড়কাণ্ডের তদন্তে নেমে বৃহস্পতিবার রাতে কাঁকিনাড়া থেকে গ্রেপ্তার করা হয় মানিককে। সেখান থেকে তাঁকে নিয়ে আসা হয় বজবজ থানায়। দীর্ঘ জেরার পর ভাগাড় কাণ্ডে যুক্ত থাকার কথা স্বীকার করে নেয় সে। এরপর শুক্রবার সকালে গ্রেপ্তার করা হয় তাঁকে। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে ১১ জনকে। জেরায় জানা গিয়েছে, ভাগাড়কাণ্ডে মূল মাথাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ মানিক মুখোপাধ্যায়ের। এদিকে তদন্তে জানা যাচ্ছে, ভাগাড় থেকে তুলে আনা ওই মাংস আন্তর্জাতিক বাজারেও পাচার করা হত বলে জানাচ্ছে পুলিশ। পুরো ঘটনায় আরও কড়া হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রশাসনকে। অভিযুক্তদের রেহাত করা হবে না বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে নবান্নের তরফে।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে ভাগাড়কাণ্ড নিয়ে উত্তাল কলকাতা ও শহরতলি অঞ্চলগুলি। বজবজের পর শহরের একাধিক জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করা হয়েছে বিপুল পরিমান ভাগাড়ের পচা মাংস। গতকাল রাজাবাজার থেকে ২০ টন ভাগাড়ের মাংস উদ্ধার করে তদন্তকারীরা। শুক্রবার সকালে দমদম এলাকা থেকেও উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমান ভাগাড়ের মাংস। সব মিলিয়ে ভাগাড় আতঙ্ক এখন ব্যাপক ভাবে থাবা বসিয়েছে রাজ্যবাসীর মনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here