মহানগর ডেস্ক: সিপিআইএম-কংগ্রেস-আইএসএফের জোট ‘সংযুক্ত মোর্চা’ র ব্রিগেডের একসপ্তাহ পরেই ব্রিগেডে ‘মেগা’ জনসভা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। জনপ্লাবনের বিচারে জোটের ব্রিগেডকে কয়েক গোল বেশিই দিলেন মোদি বাহিনী। তবে এদিন মোদি ‘ব্রিগেডে’ যারা সভা আলো করে ছিলেন, সেই প্রাক্তন তৃণমূল নেতাদের আরও একবার বর্শা বিদ্ধ করলেন সিপিআইএমের পলিটব্যুরোর সদস্য মহম্মদ সেলিম। পাশাপাশি এদিনের সভা থেকে যেসব প্রতিশ্রুতি দিলেন মোদি, তারও তীব্র সমালোচনা করলেন মহম্মদ সেলিম।

এদিন ব্রিগেডের সভা থেকে বাংলায় ‘ডবল ইঞ্জিন সরকার’ গড়ার ডাক দেন মোদি। তিনি প্রতিশ্রুতি দেন যে ক্ষমতায় এলে কলকাতাকে ‘স্মার্ট-সিটি’তে রূপান্তর করা হবে। মোদির এই ‘ভাষণের’ প্রেক্ষিতে তাঁকে তীব্র ভাষায় কটাক্ষ করেন মহম্মদ সেলিম। তিনি বলেন, ‘মোদি ক্ষমতায় আসার আগেও ভারতে মোট একশোটা স্মার্ট সিটি গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু কতগুলো করেছেন ? পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল সরকার আছে বলে এখানে স্মার্ট সিটি করতে পারছেন না মোদি, কিন্তু যেখানে ‘ডবল ইঞ্জিনের’ সরকার রয়েছে, সেখানে কতগুলো স্মার্ট সিটি হয়েছে ?’

পেট্রোল, ডিজেল, গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়েও এদিন মোদিকে খোঁচা দিতে ছাড়েননি সেলিম। মোদির ডবল ইঞ্জিনেকে কটাক্ষ করে সেলিম বলেন, ‘মোদি সিঙ্গেল ইঞ্জিনের সরকার ঠিক করে চালাতে পারেন না, সে কি করে ডবল ইঞ্জিন সরকার চালাবে ?’ এদিনের সভায় বাংলার সমস্ত ঝুপড়িবাসীকে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার আওতায় নিয়ে এসে পুনর্বাসনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মোদি। মোদির সেই বক্তব্যের রেশ টেনে সেলিম বলেন, ‘গুজরাটে যখন ডোনাল্ড ট্রাম্প এসেছিলেন, তখন রাস্তার দুই পাশের ঝুপড়ি ঢাকার জন্য পাঁচিল তুলেছিলেন মোদি। কেন্দ্রে সাত বছর ও গুজরাটে কুড়ি বছর শাসন করার পরেও সেখানে ঝুপড়ি বাসীদের পুনর্বাসন দিতে পারলেন না মোদি, সেখানে বাংলায় উনি কী পুনর্বাসন দেবেন!’

এরপরেই তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করা নেতাদের আরও একবার আক্রমণ শানালেন সেলিম। তিনি বলেন, ‘ তোলাবাজ, সিন্ডিকেটরাজ, দুর্নীতি, সন্ত্রাসের কথা বললে যাদের নাম প্রথম মাথায় আসে, সারদা বললে যাদের মুখ ভেসে ওঠে, তারাই বিজেপির সভায় মঞ্চ আলো করে বসে আছেন।’ এরপরেই দলবদলুদের প্রসঙ্গে রনংদেহি মেজাজে সেলিম বলেন, ‘যে নেতারা এক সময় বলেছিলেন এই রাজ্যে লাল ঝান্ডা থাকবেনা, তারা এখন তৃণমূলের ঝান্ডাকে ন্যাকড়া করে মোদি অমিত শাহর জুতো পালিশ করছে!’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here