11

ডেস্ক: চারদিনের নাটকের আসর। বসছে তপন থিয়েটারে। আয়োজক হাওড়া কদমতলা থিয়েটার ওয়ার্কার্স। এটি সংস্থার ২৫ বর্ষপূতি উদযাপনের দ্বিতীয় পর্যায়ের অনুষ্ঠান। ১২ থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত এই নাট্যোৎসবে থাকছে মোট ৯টি প্রযোজনা। প্রথমদিন নিজেদের প্রযোজনা দিয়েই উৎসবের সূচনা হবে। ১২ তারিখ সন্ধে সাড়ে ছ’টায় পরিবেশিত হবে তাদের প্রযোজনা ‘আঁধার গলি’।

তপনকুমার হাজরার লেখা এই রাজনৈতিক নাটকের নির্দেশক অশোক ঘোষ। রাজনীতি নাগরিক সমাজের সঙ্গে আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে রয়েছে। তার কুফল ক্রমে ঢুকে পড়েছে পারিবারিক পরিধিতেও। সেই সংকটের অন্ধকার ও তা থেকে আলোসন্ধানের গল্প আঁধার গলি। মোদ্দাকথায় এটুকু গল্পের নির্যাস। গল্পের নাটকীয় ঘটনার স্বাদ পেতে হাজির হতে হবে প্রেক্ষাগৃহে। যেখানে গল্পের বয়ান করবেন বিন্দিয়া ঘোষ, গম্ভীরা ভট্টাচার্য প্রমুখ অভিনেতারা।

উৎসবের দ্বিতীয়দিন ১৩ এপ্রিল। থাকছে তিনটি নাট্য প্রযোজনা। দুপুর তিনটেয় সোনারপুর কৃষ্টি সংসদের প্রযোজনা ‘নয়নে নয়নে’। নাটককার ও নির্দেশক সংগ্রামজিৎ সেনগুপ্ত। বিকেল ৪টে ১৫-য় থাকছে শিলিগুড়ি বলাকা প্রযোজিত ‘ফোর আওয়ার্স’। মৈনাক সেনগুপ্তের রচনায় প্রযোজনাটি নির্মাণ করেছেন কল্যাণ দাশগুপ্ত। সন্ধে সাড়ে ছ’টায় অনীক মঞ্চস্থ করবে ‘পিরানদেল্লো ও পাপেটিয়ার’, চন্দন সেনের লেখা এ নাটকের পরিচালক অরূপ রায়।

১৪ এপ্রিল তৃতীয়দিনে মঞ্চস্থ হবে দু’টি নাটক। দুপুর তিনটেয় শ্যামবাজার মুখোমুখির প্রযোজনা ‘ঘটকবিদায়’। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের এই নাটকের নির্দেশক পৌলমী চট্টোপাধ্যায়। সন্ধে সাড়ে ছ’টায় সংস্তব পরিবেশন করবে লোকনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা ‘কাল্পনিক বাস্তব’ নাটকটি। পরিচালক সীমা মুখোপাধ্যায়।

শেষদিন ১৫ এপ্রিল তিনটি প্রযোজনা দেখা যাবে। দুপুর তিনটে, বিকেল ৪টে ১৫ এবং সন্ধে সাড়ে ছ’টায় নাট্য মঞ্চস্থ করবে যথাক্রমে সবার পথ, বর্ণকথা চন্দননগর এবং শিল্পী সংঘ। উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়ের ‘নয়ন’ নাটকের নির্দেশক সঞ্জিতা, ‘একের মধ্যে দুই’, নাটক ও নির্দেশনায় সমর চট্টোপাধ্যায়। সঞ্জয়ের চট্টোপাধ্যায়ের ‘স্তব্ধ বসন্ত’ পরিচালনা করেছেন সীমা মুখোপাধ্যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here