কাশ্মীর প্রসঙ্গে ট্রাম্পের পর ফরাসি বিদেশমন্ত্রকের ফোন এল ইসলামাবাদে

0
196
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক:  ট্রাম্পের পর এবার ফরাসি মন্ত্রীর ফোন পেল পাকিস্তান। পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশির সঙ্গে ফোনে কথা বলেন ফরাসি মন্ত্রী জেন ইয়েভিস লে ডারিয়ান। তাঁদের তরফে পাক মন্ত্রককে অনুরোধ করা হল অশান্তির বাতাবরণ তৈরি করতে পারে এরকম ধরনের পরিস্থিতি এড়িয়ে চলতে। ইতিমধ্যেই অনেক ব্যর্থ চেষ্টার পর রাষ্ট্রসংঘের দরবারে ধাক্কা খেয়ে আন্তর্জাতিক কোর্টের দরজায় কড়া নেড়েছে পাকিস্তান। অন্যদিকে উস্কানি মূলক পোস্ট করার জন্য, ২০০পাক নাগরিকের টুইটার অ্যাকাইন্ট বন্ধ করল টুইটার কর্তৃপক্ষ। কাশ্মীর ইস্যুতে গোটা বিশ্বেকে পাশে পেতে চেয়েছিল পাকিস্তান,আদতে তা স্বপ্নই রয়ে গেছে বাস্তব ছবিটা সম্পূর্ণ আলাদা।

এদিকে টালমাটাল পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে তা সামাল দিতে মধ্যস্থতা করার অনুরোধ জানিয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাঁর ঠিক পর পরই ফরাসি বিদেশ মন্ত্রকের তরফে পাকিস্তানকে ফোন করে জানান হয়, সংযম বজায় রাখতে। প্রসঙ্গত বৃহস্পতিবার অ্যান্তর্জাতিক আদালতের দারস্থ হয়েছে ইমরান খানের সরকার। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ইসালামাবাদকে শান্তি বজায় রাখার অনুরোধ জানাল ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্যতম সদস্য। এদিন ট্রাম সরকারের তরফে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়, কাশ্মীরের পরিস্থিতি বিস্ফোরক ও অত্যন্ত জটিল। হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, কাশ্মীর খুব জটিল একটা জায়গা। সেখানে হিন্দু আছে, মুসলিম আছে। তাঁরা একসঙ্গে খুব ভালো আছে এমনটা আমি বলতে পারব না। বর্তমানে এটাই পরিস্থিতি। বস্তুত ফ্রান্সে আয়োজিত আসন্ন জি৭ বা গ্রুপ অফ সেভেনের বৈঠকে ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা হবে মোদীর। তবে সেই আলচনা সভা থেকেই কি উঠে আসবে কাশ্মীর প্রসঙ্গ তা নিয়ে সরগরম আন্তর্জাতিক রাজনীতি।

উল্লেখ্য ফরসী বিদেশ মন্ত্রকের তরফে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়, কাশ্মীর ইস্যু সম্পূর্নই ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয়। এই ক্ষেত্রে পাকিস্তানের উচিত শান্তি বজায় রেখে ধীরস্থির ভাবে পদক্ষেপ নেওয়া। দু’দেশের নাগরিকদের জন্যই হানীকারক এমন কোন পদক্ষেপ যেন পাক-সরকারের তরফে না নেওয়া হয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here