মহানগর ওয়েবডেস্ক: নেপালের লাফালাফি কিছুতেই কমছে না। কখনও উত্তরাখণ্ডকে তারা নিজেদের বলে দাবি করছে। কখনও বা বলছে ভগবান রাম জন্মেছিলেন নেপালে। এত বিতর্কের পরও মন ভরেনি ছোট্ট প্রতিবেশী দেশটির। এবার তারা দাবি করেছে, বুদ্ধ ধর্মের প্রবর্তক গৌতম বুদ্ধও নাকি নেপালে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। যা নিয়ে নতুন করে বিতর্ক বেঁধেছে জোর।

রবিবার নেপালের বিদেশ মন্ত্রক দাবি করেছে, গৌতম বুদ্ধ জন্মগ্রহণ করেছিলেন নেপালে। সে দেশের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র বলেছেন, এই নিয়ে কোনও সংশয় নেই। ঐতিহাসিক ও পুরাতাত্ত্বিক সাক্ষ্যপ্রমাণ এই বিষয়ে সিলমোহর দেয় যে গৌতম বুদ্ধের জন্ম নেপালের লুম্বিনিতে হয়েছিল। এই লুম্বিনিকে ইউনেস্কো হেরিটেজ স্থান হিসেবেও স্বীকৃতি দিচ্ছে বলে দাবি করা হয়। একই সঙ্গে বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র এটাও বলেন যে, বৌদ্ধ ধর্ম নেপালের পর গোটা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু সেটা নেপাল থেকেই শুরু হয়।

যদিও বলাই বাহুল্য, গৌতম বুদ্ধর জন্ম বিহারের বুদ্ধগয়ায় হয়েছিল। সেটা আপামর বিশ্ব জানে। উল্লেখ্য, এর আগে নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা অলি দাবি করেছিলেন যে ভগবান রাম নাকি নেপালি তিনি সেখানেই জন্মগ্রহণ করেছিলেন। শুধু তাই নয়, তিনি নেপালে রাম মন্দিরও নির্মাণ করবেন বলে জানিয়েছেন। এবার গৌতম বুদ্ধকে নিয়েও মন্তব্য করে চাঞ্চল্য ছড়াল নেপালের বিদেশ মন্ত্রকের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here