kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: গতকাল বাম কংগ্রেস ও আব্বাস সিদ্দিকীর মিলিত সংযুক্ত মোর্চার ব্যানারে ব্রিগেড সভা হয়েছে। সেই সভা নিয়ে বিজেপির তরফ থেকে লাগাতার আক্রমণ জারি আছে। গতকাল এবং আজ বিজেপি নেতারা একাধিকবার বলেছেন, আব্বাসকে সঙ্গে নিয়ে বাম-কংগ্রেস সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করার চেষ্টা করছে। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, বাংলাকে এবার গ্রেটার বাংলাদেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে। এবার শুভেন্দু অধিকারী সুর আরও চড়ালেন। বাম-কংগ্রেস জোট-সহ আব্বাসকে তীব্র আক্রমণ করে তিনি তাদের ভোট না দিয়ে বিজেপিকে ভোট দিতে বলেছেন।

​সোমবারে নদিয়ার বীরনগরে সভা করেন শুভেন্দু। সেই সভায় শুভেন্দু বলেন, আব্বাস সিদ্দিকী কংগ্রেস এবং বামেরা এক হয়েছে। সবাই সাবধান হয়ে যান। ফুরফুরার পিরজাদা ত্বহা সিদ্দিকী বলেছেন তৃণমূলকে ভোট দিতে। আর এদিকে আব্বাস সিদ্দিকী বলেছেন বামেদের ভোট দিতে। বাংলার কী অবস্থা হবে ভেবে দেখুন।‘

​জোটকে নিয়ে এই আক্রমণের পাশাপাশি শুভেন্দু রাজ্য প্রশাসনকে নিয়েও সরব হয়েছেন। তিনি বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচন করতে হলে রাজ্যের মুখ্যসচিব-সহ ডিএম, এসপি,  ডিএসপি পদমর্যাদার অফিসারদের পাল্টে দিতে হবে। শুধু তাই নয়, সুষ্ঠুভাবে ভোট করাতে হলে প্রথমে নবান্নের সিএমও-তে মতে তালা লাগাতে হবে। কারণ নির্বাচনী আচরণবিধি শুরু হয়ে গেলেও দেখা যাচ্ছে সবুজ সাথী প্রকল্পে সাইকেল বিলি করা হচ্ছে। চেক বিলি হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী নিজের স্বার্থের জন্য কোনও আইন মানেন না। তাই সুষ্ঠুভাবে ভোট করাতে গেলে প্রশাসনিক পদাধিকারীদের পাল্টে ফেলতে হবে। এদিনের এই সভায় শুভেন্দু ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here