ডেস্ক: সোমবার থেকে রাজ্যে শুরু হল মাধ্যমিক পরীক্ষা। সেই পরীক্ষা দিতে গিয়েই রহস্যজনক ভাবে পরীক্ষাকেন্দ্রের বাথরুম থেকে হাত-পা বাঁধা ও অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার হল এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। ঘটনাটি ঘটেছে মালদা জেলার সদর মহকুমার বামনগোলা হাইস্কুলে। প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, বামনগোলা ব্লকের ছাতিয়া হাইস্কুলের ওই ছাত্রীর শীত পড়েছিল বামনগোলা হাইস্কুলে।

এদিন পরীক্ষা দিতে সেখানে নির্বিঘ্নেই পৌঁছে গিয়েছিল সে। কিন্তু বামনগোলা হাইস্কুল পৌঁছাবার পরেই নিঁখোজ হয়ে যায় সে। তার বাড়ির লোকেরাই দীর্ঘক্ষণ খোঁজাখুঁজির পর স্কুলের বাথরুম থেকে হাত-পা বাঁধা ও অচৈতন্য অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে। দ্রুত তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তার চিকিৎসা শুরু হয়েছে। ওই ছাত্রীর চেতনা না ফিরলে এটা বোঝা যাবে না কে বা কারা তাকে বেঁধে ফেলে রেখেছিল।

তবে ঘটনার জেরে স্কুলটিতে অভিভাবকরা কিছুটা হলেও বিক্ষোভ দেখান। তবে যে বিষয়টি নিয়ে রহস্যদানা বাঁধছে তা হল, ওই ছাত্রীকে কে বা কারা কোন উদ্দেশ্যে স্কুলের বাথরুমে অচেতন করে হাত-পা বেঁধে ফেলে রাখল সেটা নিয়েই। তবে স্কুলটিতে পরীক্ষা সময়মতই শুরু হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here