ডেস্ক: শহরে ফের যৌন নিগ্রহের শিকার দুই নাবালিকা৷ এবার ঘটনা লেক থানার গোবিন্দপুর এলাকার৷ স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ দুই প্রৌঢ়কে গ্রেফতার করেছে৷ তাদের বিরুদ্ধে পসকো আইনে মামলা রুজু করেছে পুলিশ৷ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতরা হল গোরাচাঁদ দাস( ৬০) ও শেখর হালদার(৬২)। গোরাচাঁদ দাস পেশায় রঙ মিস্ত্রি আর শেখর হালদার একটি আবাসনের নিরাপত্তারক্ষী বলে জানা গিয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তৃতীয় শ্রেণি ও পঞ্চম শ্রেণির দুই নাবালিকা প্রাইভেট টিউশনে গিয়েছিল। তাদের শিক্ষিকা ওই দুই নাবালিকার শরীরের ক্ষতের চিহ্ন দেখতে পান৷ তাদের ব্যবহারও অস্বাভাবিক লাগছিল৷ শিক্ষিকা জানতে চাইলে শুরুতে ভয়ে দুই নাবালিকা বিষয়টি চাপা দেওয়ার চেষ্টা করছিল৷ পরে শিক্ষিকা জোর করাতে তারা সবকিছু বলে দেয়৷ সামনে আসে প্রকৃত সত্য৷

শিক্ষিকাকে তারা জানায়, স্থানীয় দুই প্রৌঢ় তাদের এই হাল করেছে৷ তারা ওই দু’জনকে দাদু বলে ডাকে। চকোলেট ও টাকার প্রলোভন দেখিয়ে ওই দুই নাবালিকাকে যৌন নির্যাতন করত এলাকারই দুই দাদু। খবর ছড়িয়ে পড়াতে স্থানীয়দের মধ্যে প্রতিক্রিয়া শুরু হয়৷ এলাকায় বাড়তে থাকে উত্তেজনা৷ খবর যায় পুলিশে৷ লেক থানার পুলিশ এসে প্রথমেই অভিযুক্ত দুই প্রৌঢ়কে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের পর দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়। এবং বুঝবার আলিপুর আদালতে পেশ করা হয়৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here