ডেস্ক: গোধরা ট্রেন অগ্নিকাণ্ড মামলায় অভিযুক্ত ইয়াকুব পাতালিয়াকে যাবজ্জীবন সাজা দিল গুজরাটের একটি বিশেষ সিট আদালত। বিশেষ আদালতের বিচারক এইচ সি ভোরা বুধবার এই সাজা ঘোষণা করেন। এই মামলায় পাতালিয়ার আগে ধৃত পাঁচ অভিযুক্তের বয়ানের ভিত্তিতে তাকে এই সাজা দিয়েছেন বিশেষ আদালতের বিচারক।

উল্লেখ্য, ২০০২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি গোধরা রেল স্টেশনে একদল দুষ্কৃতী সবরমতী এক্সপ্রেসের দুটি কোচে আগুন ধরিয়ে দেয়। এই অগ্নিকাণ্ডে ৫৯ জন করসেবক মারা যায়। এ ঘটনার পর গুজরাট রাজ্য জুড়ে দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে গোধরা পুলিশ ইয়াকুব পাতালিয়াকে গ্রেফতার করে। গোধরা ট্রেন অগ্নিকাণ্ড মামলায় দুষ্কৃতীদলের অংশ হিসাবে অভিযুক্ত হয় পাতালিয়াও। সবরমতী সেন্ট্রাল জেলে এক বিশেষ আদালতে তার বিচার চলে। এদিন তার সাজা ঘোষণা করেন বিচারক এইচ সি ভোরা। এর আগে ২০১১ সালের ১ মার্চ এই মামলায় ৩১ অভিযুক্তকে সাজা দেয় বিশেষ সিট আদালত। এর মধ্যে ১১ জনের মৃত্যুদণ্ড হয় এবং যাবজ্জীবন সাজা হয় ২০ অভিযুক্তের। পরে ২০১৭ সালের অক্টোবরে ওই ১১ আসামীর মৃত্যুদণ্ডের সাজা রদ করে যাবজ্জীবন দেয় গুজরাট হাইকোর্ট।

অন্যদিকে, বাকি ২০ আসামীর সাজা বহাল রাখে। গতবছর আগস্টে বিশেষ আদালত এই মামলায় ধৃত অপর দুই অভিযুক্ত ফারুক ভানা এবং ইমরান শেরির যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করে। অন্যদিকে, বেকসুর ঘোষণা করে হুসেন সুলেমান মোহন, কাসেম ভামেদি এবং ফারুক ধান্তিয়াকে। উল্লেখ্য, এদের ২০১১ সালের পর গ্রেফতার করা হয়েছিল। জানা গিয়েছে, এই মামলায় অভিযুক্তদের মধ্যে ৮ জন এখনও পলাতক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here