kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ২৩মে লোকসভা ভোটের ফল প্রকাশের পর থেকে অ-বিজেপি রাজ্য কর্নাটক, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থানে সরকার রীতিমতো চ্যালেঞ্জের সামনাসামনি হয়েছে৷ ওই রাজ্যগুলিতে সরকার টিঁকিয়ে রাখা এখন কংগ্রেসর কাছে বড় চ্যালেঞ্জ৷ রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশে ক্ষমতায় আছে কংগ্রেস জোট৷ অন্যদিকে কংগ্রেসর সমর্থনে কর্নাটকে ক্ষমতায় আছে জনতা দল সেক্যুলার(জেডিএস)৷ কর্নাটকে ২২২টি বিধানসভার মধ্যে বিজেপি একাই ১০৪টি আসন পেয়েছ৷ অন্যদিকে ৮০টি আসন পেয়েছে কংগ্রেস ও মাত্র ৩৭টি আসন পেয়েছে জেডিএস৷

কংগ্রেস ও জেডিএস মিলে মোট ১১৭ টি আসন নিয়ে ২০১৮ র ১২ মের পরে সরকার চালাচ্ছে৷ এই সরকারের বয়স এক বছর হয়েছে৷ ২০১৯ সালে এই দু’টি দল একসঙ্গে লড়ে ২৮টি আসনের মধ্যে মাত্র ২টি আসন পেয়েছে৷ কংগ্রেসর ২০১৪ সালের লোকসভার নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে , জেডিএস সুপ্রিমো তথা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়া ও তাঁর দুই নাতি হেরে গিয়েছেন৷ বিজেপি একাই ২৫টি আসন দখল করেছে ৷ কংগ্রেস ও জেডিএস দুটি দল একটি করে আসন পেয়েছ৷ আর এই হারের জন্য দেবেগৌড়ার দল সরাসরি জোটমিত্র কংগ্রেসকে দায়ী করেছে৷ তাদের অভিযোগ, জোট ধর্ম মেনে কংগ্রেসসিরা তাদের প্রার্থদের হয়ে প্রচার করেনি৷ এরপর থেকেই দুই দলের মধ্যে মনমালিন্য চলছে৷ অনেক সময় তা প্রকাশ্যে এলেও কংগ্রসের দাবি ঠিকঠাকই চলছে জোট৷

জোটে এ ঘোঁট পাকাচ্ছে কংগ্রেস৷ লোকসভা উত্তর এমন অভিযোগ করে আসছে জনতা দল সেক্যুলার৷ এদিন যেমন, কর্নাটেকর মুখ্যমন্ত্রী তথা জেডিএস-এর অন্যতম মুখ এইচ ডি কুমারস্বামী প্রকাশ্যে অভিযোগ করেন তিনি প্রতিদিন তীব্র যন্ত্রণা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন৷ নাম না করে তিনি জোটবন্ধু কংগ্রেসকে একহাত নিলেন৷ তাঁর স্পষ্ট অভিযোগ, জোর করে তাঁকে জনহিতকর কাজ করতে দেওয়া হচ্ছে না৷ তাঁর কথায়, ‘আপনারা জানেন না প্রতিদিন অসহ্য যন্ত্রণা নিয়ে কাজ করি৷ আমরা উচিত আপনাদের ব্যথা দূর করা৷ তবে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে সরকারকে স্বচ্ছন্দ ভাবে চালিয়ে নিয়ে যাওয়াও আমার কর্তব্য৷’

কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধারামাইয়া অবশ্য সাফ জানান কর্নাটক সরকারের কোনও সমস্যা নেই৷ তাঁর অভিযোগ, বিজেপি গত এক বছর ধরে বার বার সরকার ফেলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে৷ তবে তাদের সেই চেষ্টা বিফলে গেছে৷ রাজ্য সরকারের কোনও সমস্যা নেই৷ তাঁর মতে, একসঙ্গে থাকসে ছোটখাটো মন মিলন্য হতেই পারে৷ তবে তা আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে সবসময় মিটিয়ে ফেলি৷ তাঁর দাবি, ৫ বছর এই সরকার চলবে৷

সিদ্ধারামাইয়া দাবি করলেও বাস্তবে বিহারের মতো অবস্থা হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা আছে কর্নাটকেও৷ এখানে জেডিএস যে কোনও সময়ে কংগ্রেসর হাত ছেড়ে বিজেপির সঙ্গে জোট করতে পারে৷ শুধু কমারস্বামীকে মুখ্যমন্ত্রী করার নিশ্চয়তা দিলে এমন অবস্থা হতে পারে বলে জানান নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেডিএস- এর অন্যতম শীর্ষ নেতা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here