ডেস্ক: ফের ঊর্ধ্বমূখী সোনার দাম। চলতি সপ্তাহের প্রথম থেকেই বেড়েছে এই হলুদ ধাতুর দাম। শেয়ার বাজারের পতনের পরই বিনিয়োগকারীরা এই হলুদ ধাতুকেই বিনিয়োগের একমাত্র উপায় হিসাবে বেছে নিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের অনুমান সামনের সপ্তাহগুলিতে এই সোনার দাম আরও বাড়বে। বিশ্ববাজারে গত সপ্তাহের শুরুতেই প্রতি আউন্স সোনার মূল্য ছিল ১১৮০ ডলার। শুক্রবার নাগাদ তা বেড়ে দাঁড়ায় ১,২২৬ ডলারে। ভারতের বাজারে গত সপ্তাহে সোনার দামে বৃদ্ধি হয়েছে ৩.৮ শতাংশের মতো। সপ্তাহের শুরুতে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার মূল্য ৩১,৩০০ টাকা থেকে বেড়ে সপ্তাহের শেষে তা পৌঁংছে গিয়েছে ৩২, ০০০ টাকায়। গত সপ্তাহের শুরুতে আইএমএফ তাদের রিপোর্টে বিশ্বব্যাপী ব্যবসায়িক বৃদ্ধি ০.২ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে বলে জানায়।

তবে হঠাৎ করে সোনার দাম বাড়ার কারণ হিসাবে মনে করা হচ্ছে, আমেরিকা ও তাঁদের সঙ্গী ব্যবসায়িক দেশগুলির বিতর্কের কথা তুলে ধরা হয়েছে। গত সপ্তাহে শেয়ার বাজারের বিশ্বব্যাপী পতন লক্ষ্য করা গিয়েছে। বুধবার ডাও জোনস একদিনে নেমেছে ৮৩০ পয়েন্ট। এশিয়ার বাজার বিশেষ করে ভারতের শেয়ার বাজারের নজরকাড়া পতন লক্ষ্য করা গেছে। আর এই শেয়ার বাজারের দৃষ্টান্তমূলক পতনের পরই সোনায় বিনিয়োগ করার হিড়িক পড়ে গেছে। ফলেই এই হলুদ ধাতুর দাম চড়চড়িয়ে বেড়ে গিয়েছে। তবে এদিকে সোনার দামের পাশাপাশি রুপোর দামও বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে সোনার তুলনামূলক নয়। অন্যদিকে বাজার বিশেষজ্ঞদের অনুমান দিওয়ালির আশপাশে আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম আউন্স পিছু ১২৪০ থেকে ১২৫০ ডলাআরে পৌঁছে যেতে পারে। ভারতের বাজারে যা প্রতি ১০ গ্রাম পিছু দাম হতে পারে ৩২,৫০০ থেকে ৩২,৮০০ টাকার মধ্যেল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here