kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: রাজ্য সরকারের নির্দেশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ইচ্ছামতো ভাড়া নিচ্ছে বেশকিছু বাস। আর তা নিয়েই বাস যাত্রীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। লকডাউনের মধ্যে এমন অব্যবস্থা এবং প্রশাসনের নজরদারি আভাব থাকায় ভুগতে হচ্ছে সাধারণ বাস যাত্রীদের। অভিযোগ, বনগাঁ থেকে দক্ষিণেশ্বর বাসের ভাড়া অতিমাত্রায় বৃদ্ধি করা হয়েছে। ভাড়ার তালিকা থেকেও ১০ থেকে ১৫ টাকা বেশি ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ডিজেলের দাম বৃদ্ধির অজুহাত দেখিয়ে।

যদিও রাজ্য সরকার বার বার ঘোষণা করছে যে বাসের ভাড়া বাড়ানো যাবে না। রাজ্য সরকারের কথা অমান্য করে বাস মালিকরা নিজেরাই ভাড়া বাড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ তুলছেন যাত্রীরা। এমনকী যাত্রীদের কাছ থেকে এক এক দিন এক এক রকম ভাড়া নেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ। আইএনটিটিইউসি-এর উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সভাপতি তাপস দাসগুপ্ত ঘটনার কথা স্বীকার করে নিয়ে বলেন, কয়েকটি বাস সংগঠন ও মালিকরা বেআইনি ভাবে ভাড়া বৃদ্ধি করছেন। বাস মালিকদের ক্ষতির কথা মাথায় রেখে মুখ্যমন্ত্রী ট্যাক্স এবং পারমিট ফি মকুব করেছেন। তারপরেও তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়াকে অজুহাত করে বাস মালিকেরা ভাড়া বাড়িয়েছে।

তিনি আরও বলেন, অনেক প্যাসেঞ্জারের কাছ থেকেই ১০ থেকে ১৫ টাকার বেশি ভাড়া নেওয়া হচ্ছে। এটা খুব অন্যায় হচ্ছে। রাজ্য সরকারের নির্দেশকে অমান্য করে ভাড়া বাড়িয়েছেন বাস মালিকরা। তা হলে কি রাজ্য সরকারের ওপর ভরসা রাখতে পারছেন না বাস মালিকরা উঠছে প্রশ্ন?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here