kolkata news
Highlights

  • ‘রাজ্য সরকার নির্বাচনে যেতে ভয় পাচ্ছে। তাই পুরসভাগুলোতে অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বসিয়ে কাজ চালাবার চেষ্টা করছে।’
  • পুরভোট নিয়ে আবার এভাবেই নিজের সংশয় প্রকাশ করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ
  • বৃহস্পতিবার সকালে সোদপুর ট্রাফিক মোড়ে ‘চায়ে পে চর্চা’ কর্মসূচিতে এসে সাংবাদিকদের সামনে এই কথা বলেন তিনি


নিজস্ব প্রতিনিধি, ব্যারাকপুর:
‘রাজ্য সরকার নির্বাচনে যেতে ভয় পাচ্ছে। তাই পুরসভাগুলোতে অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বসিয়ে কাজ চালাবার চেষ্টা করছে।’ পুরভোট নিয়ে আবার এভাবেই নিজের সংশয় প্রকাশ করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বৃহস্পতিবার সকালে সোদপুর ট্রাফিক মোড়ে ‘চায়ে পে চর্চা’ কর্মসূচিতে এসে সাংবাদিকদের সামনে এই কথা বলেন তিনি।

পাশাপাশি, বুধবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, কৃষি পণ্য রফতানির ক্ষেত্রে কোনও চেকপোস্ট থাকবে না। কৃষকদের জন্য রাজ্য সরকার নতুন এই সিদ্ধান্ত নিয়ে বলে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ওই কেন্দ্রগুলো থেকে কাটমানি তুলতেন। এখন থেকে আর তুলতে পারবেন না। তাতে একটাই লাভ হল, বেশি করে কৃষিজ পণ্যগুলো মানুষের হাতে সহজেই পৌঁছে যাবে।’

বৃহস্পতিবার সকালে সোদপুর ট্রাফিক মোড়ে ‘চায়ে পে চর্চা’ অনুষ্ঠানে দিলীপ ঘোষ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কলকাতা উত্তর শহরতলির বিজেপি সভাপতি কিশোর কর, সাধারণ সম্পাদক চণ্ডীচরণ রায়, প্রাক্তন সভাপতি মানস ভট্টাচার্য প্রমুখ। এদিন বিজেপির এই কর্মসূচি ও দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের পাল্টা সমালোচনা করেন পানিহাটি পুরসভার প্রাক্তন পুরপ্রধান স্বপন ঘোষ। তিনি বলেন, ‘ এদিন থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। তারই মাঝে কী করে তিনি এই অনুষ্ঠান করলেন?’ দিলীপ ঘোষের ‘বোধবুদ্ধি’ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here