rahul gandhis news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: চারিপাশে সন্দেহের বাতাবরণ। নানা ধরনের জল্পনা ঘুরে বেড়াচ্ছে বাতাসে। ভারত-চীন সীমান্ত দ্বন্দ্বে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা নিতে সম্প্রতি প্রস্তাব পেশ করেছে আমেরিকা। এহেন অবস্থায় উত্তর-পূর্ব ভারতের সীমান্ত পরিস্থিতি কোন পর্যায়ে সে বিষয়ে রা কাড়ছে না কেন্দ্র। এমন সময়ই এবার সরব হয়ে উঠলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। শুক্রবার কেন্দ্রীয় সরকারকে একাধিক প্রশ্ন করার পাশাপাশি তিনি জানালেন, চীনের সঙ্গে সীমান্ত দ্বন্দ্ব নিয়ে সরকারের নীরবতা দেশের মধ্যে জল্পনা বাড়িয়ে তুলেছে। নীরবতা ভেঙে সরকারের উচিত সেখানকার বর্তমান পরিস্থিতি দেশবাসীর সামনে খোলসা করা।

শুক্রবার নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে রাহুল গান্ধী লেখেন, ‘চীনের সঙ্গে সীমান্ত দ্বন্দ্ব নিয়ে সরকার যেভাবে নীরব রয়েছে তাতে দেশের অভ্যন্তরে জল্পনা এবং অনিশ্চয়তা আরো বেশি শক্তিশালী হয়ে উঠছে।’ এরপরই কেন্দ্রকে পরামর্শ দিয়ে তিনি লেখেন, ‘সরকারের উচিত সামনে এসে গোটা বিষয়টি স্পষ্ট করা। এবং যে পরিস্থিতি সেখানে চলছে তা স্পষ্ট করে দেশবাসীকে জানানো।’ শুধু এটাই নয় কিছুদিন আগেই ভারত-চীন সীমান্ত দ্বন্দ্বের বিষয়টি তুলে ধরে কংগ্রেস নেতা জানিয়েছিলেন, দুই দেশের সীমান্ত দ্বন্দ্ব সামাল দিতে আরো বেশি পারদর্শিতা দেখানো উচিত সরকারের।

উল্লেখ্য, গত ৫ মে লাদাখ সীমান্তে প্রায় ২৫০ চিন এবং ভারতীয় সেনার মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। সেই ঘটনায় দুপক্ষের প্রায় ১০০ জন সৈনিক আহত হন। পরে পরিস্থিতি সামাল দিতে দুই দেশের স্থানীয় কমান্ডাররা বৈঠকে বসেন এবং বিষয়টি আপৎকালীন ভাবে সুরাহা করেন। এরপর গত ৯ মে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে উত্তর সিকিমের ভারত-চীন সীমান্তে। তারপর থেকেই রীতিমতো উত্তাল হয়ে উঠেছে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here