kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে বাবুল সু্প্রিয় হেনস্থার ঘটনায় দ্বন্দ্ব দু’ভাগ হয়ে গিয়েছিল রাজভবন ও নবান্ন। সরকারের সিদ্ধান্তের কথা না জেনেই রাজ্যপাল সরাসরি বাবুলকে ‘উদ্ধার’ করতে গিয়েছিলেন, এই বিষয় মানতে পারেনি সরকার। যা নিয়ে তীব্র মতবিরোধ হয়। কিন্তু হঠাৎ ভোলবদল! মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। জানালেন, মমতা একজন দয়ালু, নরম মনের মানুষ।

শহরের একটি পাঁচতারা হোটেলে এক বণিকসভার অনুষ্ঠানের বিষয় ছিল নারীর ক্ষমতায়ন। সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রসঙ্গে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় বলেন,

‘মমতা খুব নরম মনের মানুষ, তিনি দয়ালু। আমরা শপথ নিয়েছি, সংবিধান রক্ষার স্বার্থে একসঙ্গে কাজ করব। তিনি রাজ্যে ভাল কাজ করছেন।’

রাজ্যপালের এই মন্তব্য ইতিমধ্যেই সাড়া ফেলে দিয়েছে বঙ্গীয় রাজনৈতিক মহলে। দু’দিন আগে যে রাজ্যপাল মুখ্যমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের কথা তোয়াক্কা না করে নিজেই যাদবপুরে চলে গিয়েছিলেন, তিনি হঠাৎ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসা করায় জল্পনা ছড়িয়েছে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় এই বিষয় বলেছেন, যতদিন এগোবে ততদিনে রাজ্যপাল বুঝে যাবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক তাৎপর্য কতটা।

উল্লেখ্য, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে এবিভিপি আয়োজিত নবীন বরণ অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সু্প্রিয় আসা নিয়ে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। পরবর্তী সময় রাজ্যপাল জগদীপ ধড়কর খোদ এসে বাবুলকে ‘উদ্ধার’ করে নিয়ে যান। পাশাপাশি, সরকাররে সমালোচনা করে মন্তব্যও করেন। এই নিয়ে রাজভবন-নবান্ন সংঘাতও হয়। রাজ্যপালের মন্তব্য সমর্থন করেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here