মহানগর ওয়েবডেস্ক: বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় কখন কী নিয়ে যে, আলোচনা হতে পারে তা সম্ভবত অতি সক্রিয় নেটাগরিকরাও আগাম অনুমান করতে পারেন না।

আচমকাই এক টুইটার ইউজার ইরফান পাঠানের ছবিতে অদ্ভুত কমেন্ট করে বসলেন। ক্রুতিকা হিন্দু নামের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে লেখা হলো, ” ইরফান পাঠান পরবর্তী হাফিজ সঈদ হতে চায়। তিনি তার উচ্চাশা লুকিয়ে রাখতে চান না।”

প্রসঙ্গত হাফিজ সঈদ জঙ্গী সংগঠন লস্কর-ই-তইবার প্রতিষ্ঠাতা ও নেতা। তার সঙ্গে তুলনা টানা হয়েছে দেখে পাঠান হতবাক হয়ে যান। তিনি টুইট করে লেখেন, “কিছু মানুষের মানসিকতা দেখলে লজ্জা হয়। কোথায় এসেছি আমরা!”

পাঠানের টুইট দেখে অভিনেত্রী রিচা চাড্ডা লেখেন, “এটা ফেক অ্যাকাউন্ট। আসল কেউ নয়।” যা দেখে পাঠান লেখেন, “কেউ তো ম্যানেজ করছে!”


অনেকে মনে করেন যে, দেশের প্রাক্তন ফাস্টবোলার পাঠানের কেরিয়ার শেষ করার জন্য দায়ী পাঠান। কিন্ত সেকথা নাকচ করে দিয়েছেন পাঠান। ইনস্টাগ্রাম লাইভে তিনি বলেছেন, “চ্যাপেল আমার কেরিয়ার নষ্ট করেননি। এটা ভুল কথা। যেহেতু উনি দেশের বাইরের লোক ছিলেন ফলে ওনাকে টার্গেট করা সহজ ছিল। আমি আবার অবসরের পরেও এই কথাটাই বলেছিলাম। যাঁরা বলেন যে, চ্যাপেল আমাকে অলরাউন্ডার বানিয়ে তিনে নামিয়ে কেরিয়ার শেষ করেছেন, তাঁরা ভুল বলেন। আসলে এটা শচীন পাজির ভাবনা ছিল। ও রাহুল দ্রাবিড়কে পরামর্শ দেয় আমাকে তিনে নামানোর জন্য। কারণ শচীন বলেছিল আমি নতুন বলে ফাস্টবোলারকেও ছয় মারার ক্ষমতা রাখি। তাই আমাকে যেন তিনে ভাবা হয়।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here