তিরুপতির দর্শনার্থীদের হাতে হজ যাত্রার বিজ্ঞপ্তি, জগন্মোহন সরকারকে কাঠগড়ায় তুলল বিজেপি

0
63
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: তিরুপতি যাত্রীদের হাতে মেলে হজ যাত্রার বিজ্ঞপ্তি। ঘটনাটি ঘটেছে জগন্মোহনের রাজ্যে। অন্ধপ্রদেশের একটি বাসের টিকিটে দেখা যায় এই বিজ্ঞপ্তি। এর জেরে বেজায় বিতর্কের মুখে পড়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী। জানা গিয়েছে শুক্রবার তিরুপতি থেকে তিরুমালা গামী একটি বাসের যাত্রীদের হাতে উঠে আসে সেই বিজ্ঞপ্তি। বাসের টিকিটে ছাপান রয়েছে হজ ও জেরুজালেম যাত্রার বিজ্ঞপ্তি। টিকিট হাতে পেতেই বেজায় চোটে ওঠেন যাত্রীরা। শুরু হয়ে যায় হই হট্টগোল।

বিজেপির তরফে দাবি করা হয়, এই কাজ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে করা হয়েছে। হিন্দুদের ভাবাবেগকে আঘাত করতেই এমন কাজ করছে অন্ধপ্রদেশ সরকার। অন্যদিকে ঘটনা সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। প্রশাসনের তরফে খবর নিয়ে জানা যায়, অন্ধ্রপ্রদেশ পরিবহণ কর্তৃপক্ষের ভুলের কারণেই এই বিপত্তি। কর্তৃপক্ষের তরফে জানান হয়, অহিন্দু যাত্রীদের জন্য ছাপান টিকিট ভুল করে চলে গিয়েছে তিরুপতির বাসে আর সেই টিকিটেই ছাপান রয়েছে হজ যাত্রার বিজ্ঞপ্তি।

অন্যদিকে এই বিষয়টিকে খুব সহজভাবে দেখছে না অন্ধ্রের বিজেপি। তাদের তরফে বলা হয়, জগন্মোহন রেড্ডি নিজে হিন্দু নন, তাই এমন ধরনের কাজে উৎসাহ দিচ্ছেন। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে নিয়ে তোষণের রাজনীতি করছে রেড্ডি সরকার। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে বিদেশ সফরে গিয়েও বিজেপির নিশানায় আসেন জগন্মোহন সরকার। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি অনুষ্ঠানে তাঁকে উদ্বোধনী প্রদীপ জ্বালাতে বলা হলে তিনি নাকচ করেন। আর তার জেরেই বিজেপির সমালোচানার মুখে পড়তে হয় তাঁকে। অন্যদিকে এ প্রসঙ্গে সাফাই দিয়ে কংগ্রেস জানায়, প্রদীপটি বৈদুতিন ও রিমোট চালিত হওয়ায় অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী তা জ্বালাতে আগ্রহী হননি। তেল সলতের প্রদীপ ব্যবহারেই তিনি অভ্যস্ত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here