ডেস্ক: ২০ মার্চ পালিত হয়েছে বিশ্ব সুখ দিবস। কোন দেশের মানুষ আদতে কতটা খুশি রয়েছেন তাই নিয়ে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছিল রাষ্ট্রপুঞ্জ। সেই রিপোর্ট প্রকাশের পরেই চরমভাবে অস্বস্তিতে ভারত। কারণ রিপোর্ট অনুসারে, ২০১৭-র থেকে ২০১৮তে সুখ এবং খুশি, দুই-ই কমেছে ভারতীয়দের। সুখী দেশের তালিকায় এখন ভারতের অবস্থান ১৪০ নম্বরে। ২০১৮ সালে ১৩৩ নম্বরে ছিল ভারতবর্ষ।

মানুষের গড় আয়, স্বাধীনতা, আস্থা, স্বাস্থ্য, সামাজিক সুরক্ষা এবং মনের উদারতা, এই ছ’টি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে এই তালিকা প্রকাশ করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। রিপোর্টে দেখা গেছে, সারা বিশ্বজুড়েই সুখে থাকা মানুষের সংখ্যা নিম্নমুখী। খুশি, শান্তির জায়গায় মানুষের মধ্যে বাড়ছে হিংসা, উদ্বেগ, হানাহানির প্রবণতা। আর এশিয়ায় সুখ প্রবণতা সবচেয়ে কম ভারতের। তাই গতবছরের ১৩৩ স্থান থেকে ১৪০ স্থানে নেমে গিয়েছ ভারত, যা পাকিস্তানের থেকেও অনেক নিচে! উল্লেখ্য, আমেরিকা রয়েছে ১৬ নম্বরে।

 

পৃথিবীর মোট ১৫৬টি দেশকে নিয়ে তৈরি হয়েছে এই তালিকা। সবচেয়ে নিচে রয়েছে সুদান। তালিকার উপরের অংশের কথা বলতে গেলে বলতে হবে, সুখী দেশের তালিকায় শীর্ষ স্থানে রয়েছে ফিনল্যান্ড যা, এই নিয়ে টানা দ্বিতীয়বার। তার পরেই আছে ডেনমার্ক, নরওয়ে, আইসল্যান্ড এবং নেদারল্যান্ডস। এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে, পাকিস্তান আছে ৬৭ নম্বরে, চিন ৯৩ নম্বরে, ভুটান ৯৫ নম্বরে, বাংলাদেশে ১২৫ নম্বরে এবং শ্রীলঙ্কা ১৩০ নম্বরে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here