‘অধিনায়ক ভরসা করেছিল, দাম দিতে পেরে খুশি’, দুরন্ত হাফসেঞ্চুরির পর জানালেন জাদেজা

0
87

মহানগর ওয়েবডেস্ক: অ্যান্টিগায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথমদিন ভারতীয় ব্যাটিংকে এক কথায় আইসিইউ থেকে টেনে বের করে এনেছিলেন অজিঙ্কা রাহানে। আর দ্বিতীয় দিন সেই কাজটা করলেন ভারতীয় অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা। দুরন্ত অর্ধশতরান করলেন তিনি।

যে সময় জাদেজা ব্যাট করতে এসেছিলেন সেই সময় দলের স্কোর ছিল ১৮৯/৬। সেখান থেকেই দলকে ২৯৭ রান পর্যন্ত নিয়ে যান ‘স্যার’ জাদেজা। খেলেন ৫৮ রানের মহাগুরত্বপূর্ণ ইনিংস। দ্বিতীয় দিনের খেলার শেষে তিনি জানান,

‘যখন মিডল অর্ডারে ব্যাট করতে নামি, তখন থেকেই ঠিক করি পার্টনারশিপ গড়ে তোলা খুব দরকার। তবে নিজের ব্যাটিং নিয়ে একটু চিন্তিত ছিলাম। নিজের সেরাটা দিতে চাইছিলাম।’

দ্বিতীয় দিন খুব বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকতে পারেননি ঋষভ পন্থ। তারপর ইশান্ত শর্মাকে নিয়ে ৬০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন জাড্ডু। ‘পার্টনারশিপ গড়ে তোলার জন্য বারবার ইশান্তের সঙ্গে কথা বলছিলাম। আমরা দুজনেই ক্রিজ আঁকড়ে পরে থাকতে চাইছিলাম। আমিও আমার শট নির্বাচন খুব ভালভাবে করছিলাম’, বলেন তিনি।

এই টেস্টে অশ্বিনের বদলে স্পিনার হিসেবে জাদেজাকে দলে নেওয়া নিয়ে অনেক কথা হয়েছিল। কিন্তু জাদেজার অপর ভরসা রেখেছিলেন অধিনায়ক কোহলি। সেই ভরসার দাম দিতে পেরে খুশি জাদেজা। তিনি বলেন,

‘অধিনায়ক যখন আপনার অপর বিশ্বাস রাখেন, তখন অবশ্যই ভাল লাগে। ওর ভরসার মান রাখতে পেরে আমি খুশি।’

প্রসঙ্গত, প্রথমদিন ২০৩/৬ করে ভারত। দ্বিতীয় দিন সেখান থেকে জাদেজার দৌলতে টিম ইন্ডিয়া করে ২৯৭ রান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ইশান্ত শর্মার আগুনে স্পেলে একেবারে লুটিয়ে পরে ক্যারিবিয়ান লাইন আপ। একাই পাঁচ উইকেট নেন ইশান্ত। উইন্ডিজের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৮ রান করেন রোস্টন চেজ। ৩৫ রান করেন হেটমায়ার। দিনের শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্কোর ১৮৯/৮। তারা ভারতের থেকে এখনও ১০৮ রানে পিছিয়ে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here