মহানগর ওয়েবডেস্ক: কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন কৃষক সংক্রান্ত বিলের বিরোধিতা জানিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ত্যাগ করেছেন অকালি দলের মন্ত্রী হরসিমরত কৌর বাদল। তবে তিনি এই ইস্তফা দিতে অনেক দেরি করে ফেললেন। কেন্দ্রীয় সরকার দ্বারা পাশ হতে চলা কৃষি সম্পর্কিত তিনটি বিল ‘ভারতীয় কৃষিকে ধ্বংস’ করে দেবে। শুক্রবার এমনটাই জানিয়েছেন কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটির সেক্রেটারি সারওয়ান সিং পান্ধের।

সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘হরসিমরত কৌর বাদলজি’র ইস্তফা অনেক দেরিতে এসেছে। মানুষের ক্ষোভ কমাতে এটা উনি করেছেন। এখনও যদি সুখবীর সিং বাদলজি (অকালি দল প্রধান) বুঝতে পেরে থাকেন, তবে ওনার উচিত লাখ লাখ কর্মী নিয়ে গিয়ে সংসদ ঘেরাও করা।’ কিষাণ সমিতির সদস্যের আরও দাবি, ‘গতকাল মোদী সরকারের তিনটি কৃষি বিল পাশ করানোর সিদ্ধান্ত ভারতীয় কৃষিকে ধ্বংস করে দেবে এবং কৃষকদের উপর কর্পোরেটদের শাসন করার সুযোগ তৈরি করে দেবে।’

পঞ্জাবের আরেক কৃষক গুরুবচন সিং ছাব্বা বলেন, ‘সরকার যেটাই বলুক না কেন, এই বিল কৃষক এবং শ্রমিকদের স্বার্থ বিরোধী। আমরা এই বিল চাই না। এই বিল কৃষকদের স্বার্থ পূরণ করে না।’ অন্যদিকে অকালি দলের কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পদত্যাগ নিয়ে ওই চাষি বলছেন, ‘এখন অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে ওসব করে লাভ নেই। এটা অনেক আগে করা উচিত ছিল।’

উল্লেখ্য, বিরোধীদের হাজার বিরোধিতাকে উপেক্ষা করেই লোকসভায় তিনটি নতুন কৃষক বিল পেশ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। জানা গিয়েছে, যার মধ্যে একটি বিলে এমন কিছু শর্ত রয়েছে যার ফলে কৃষকেরা ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নাও পেতে পারেন। কেন্দ্রের এই পদক্ষেপের পরেই গতকাল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার পদ থেকে ইস্তফা দেন আকালি দলের মন্ত্রী তথা সাংসদ হরসিমরত কৌর বাদল।

পাঞ্জাবে ধাক্কা খাওয়ার পর হরিয়ানার শরিকদল দুষ্মন্ত সিং চৌটালার জেজেপিও বিজেপির সঙ্গে বৈঠকে বসেছে এই বিল নিয়ে। ফলে কৃষক বিল কেন্দ্র করে এনডিএ জোটের অন্দরে যে বড়সড় একটা ঝড় উঠতে চলেছে তার ইঙ্গিত এখন থেকেই পাওয়া যাচ্ছে বলা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here