kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিধাননগর: ভারতে আটকে পড়েছেন তিন হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি। যাদের একটা বড় অংশ চিকিৎসার জন্য এসেছিলেন। অনেকে এদেশে ঘুরতে এসে হঠাৎ ঘোষিত লকডাউনের জন্য আটকে পড়েছেন। তাদের দেশে ফেরাতে উদ্যোগী হয়েছে হাসিনা সরকার। ১ মে কলকাতায় বিশেষ বিমান পাঠাচ্ছে হাসিনা সরকার। ২ মে মুম্বই ও ৩  মে দিল্লি থেকেও বাংলাদেশ বিমান ছাড়বে। প্রাথমিক ভাবে ৭টি বিমান ঢাকা থেকে ভারতে আসবে। ফেরত যেতে ইচ্ছুক নথিভুক্ত বাংলাদেশি যাত্রীর সংখ্যা বাড়লে পরে বিমানের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে।

বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে খবর, ধীরে ধীরে সকলকেই ফেরানো হবে তাদের দেশে। এদিকে ভারত জুড়ে লকডাউনের সময় বাড়ায় দেশে না ফিরতে পেরে দুর্ভোগে পড়ছেন বাংলাদেশিরা। তবে ভারতীয় প্রশাসন তাদের সমস্ত রকম সাহায্য করছে। আরও জানা গিয়েছে, প্রায় এক হাজার বাংলাদেশি এখন পর্যন্ত ফিরে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রকে নাম নথিভুক্ত করেছেন।

ভারতে চেন্নাই এবং ভেলোরে চিকিৎসা করাতে আসা রোগীদের মধ্যে ৬৫শতাংশই বাংলাদেশি। অন্যদিকে, কলকাতার আত্মীয়দের বাড়ি ও ভ্রমণ এসে আটকে পড়েছেন এমন বাংলাদেশির সংখ্যা প্রায় দুই হাজার। স্থানীয় হোটেল ও আত্মীয়ের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন তারা। টাকা ফুরিয়ে যাওয়া একটা বড় সমস্যা। অন্যদিকে, দেশের জন্য মন টানছে তাদের। তাদের কথা ভেবেই বিশেষ বিমানে তাদের দেশে ফেরানোর উদ্যোগ নিয়েছে হাসিনা সরকার। বিশ্বের ১৩টি দেশে এখন পর্যন্ত তিনশোর বেশি বাংলাদেশি মারা গেলেও ভারতে সেই সংখ্যা এখনও শূন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here