kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: কর্ণাটকের রাজনীতি ঘিরে আবারও অস্বস্তিতে কংগ্রেস। আস্থা ভোটে হেরে এমনিতেই ক্ষমতা হারিয়েছে কংগ্রেস-জেডিএসের যৌথ সরকার। এবার কংগ্রেসের দুই হেভিওয়েট নেতার বাগ্‌যুদ্ধ ঘিরে আবারও সরগরম কর্ণাটকের রাজনীতি। যার জেরে আসন্ন উপনির্বাচনে একা লড়ার সিদ্ধান্ত নিল জেডিএস৷

দু’ দিন আগেই কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী অভিযোগ জানিয়ে বলেন, “কংগ্রেসের নাটকের ব্যাপারে আমি অবগত।” লোকসভা নির্বাচনে হারার জন্যেও সিদ্দারামাইয়াকে দায়ী করেন কুমারস্বামী। সেই প্রসঙ্গে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সিদ্দারামাইয়া জানান “ভাবনা চিন্তা ছাড়াই এমন বলছেন তিনি।”আর এরমধ্যেই প্রাক্তন মন্ত্রী তথা জেডিএসের নেতা এইচডি দেবগৌড়া বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করার কথা বলার পর থেকেই সুর চড়িয়ে সিদ্দারামাইয়া বলেন “এবারে নাটক কে করছে? আমরা না ওরা?।”

এই বাগযুদ্ধে মাঝেই এদিন ফের সিদ্দারামাইয়ার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। সিদ্দারামাইয়ার বক্তব্য প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আমি ওঁর(সিদ্দারামাইয়ার) তোতাপাখি নই। ওঁর মত অনেকেই এইচডি দেবগৌড়ার সান্নিধ্যে অনেক উন্নতি করেছে। আর কংগ্রেসের হারের জন্য বহু ক্ষেত্রে সিদ্দারামাইয়া দায়ী।” এখানেই না থেমে সিদ্দারামাইয়ার বিরুদ্ধে আরও বিষোদগার করেন কুমারস্বামী। তিনি আরও বলেন, “আমি কংগ্রেস ছাড়ার পর স্থানীয় শক্তিগুলোকে একত্র করেছি। সিদ্দারামাইয়ার এই সাহস টুকু আছে?” এদিকে লোকসভায় হারের জন্যও কংগ্রেসকে নয় সিদ্দারামাইয়াকেই নিশানা করেছেন কুমারস্বামী ।

তবে কংগ্রেসের তরফ থেকে কোনোরকম সাহায্য পাচ্ছেন না বলে বহুবারই অভিযোগ তুলেছেন কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। আজও কংগ্রেস প্রসঙ্গে মুখ খুলে কুমারস্বামী জানান, “কংগ্রেস নেতাদের নিজেকে প্রশ্ন করা উচিত, তাঁরা আমাকে ঠিক কতটা সাহায্য করেছিলেন? আমরা সর্বত ভাবে কংগ্রেসের হয়ে প্রচার করলেও কেউ আমাদের সমর্থন করেনি।”তাই, আগামী নির্বাচনে একা লড়ার ডাক দিয়েছেন দক্ষিণী রাজনীতির অন্যতম মুখ এইচডি কুমারস্বামী৷ ২১ অক্টোবর উপনির্বাচন রয়েছে কর্ণাটকে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here