Parul

মহানগর ডেস্ক: গত বছর নভেম্বরে গাঁটছড়া বেঁধেছেন অনির্বাণ-মধুরিমা। কিন্তু এখনো পর্যন্ত তাদের সুখী দাম্পত্য জীবন নিয়ে সামনে আসেনি কিছুই। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে খুব বেশি কথা বলতে ভালোবাসেন না অনির্বাণ ভট্টাচার্য। দীর্ঘদিন ধরে প্রেম করা সত্বেও গোটা ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের প্রেমিকা সম্পর্কে সাড়া ফেলতে দেননি তিনি। বিয়ের অনুষ্ঠান করেছেন একেবারে সাদামাটাভাবে। নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব একটা অ্যাক্টিভ নন তিনি।

ads

সম্প্রতি সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে নিজের দাম্পত্য জীবনের কিছু কথা তিনি সামনে রেখেছেন। অভিনেতা জানিয়েছেন, স্ত্রীর সঙ্গে এক ছাদের তলায় থেকে একঘেয়েমি লাগছে! এই কথাটা শোনার পরেই হয়তো আপনি ভাবছেন তাহলে অনির্বাণ আর মধুরিমার দাম্পত্যজীবনেও রয়েছে সমস্যা! আসুন তাহলে জানা যাক বিস্তারিত ভাবে…

অনির্বাণকে বিয়ের পরের জীবনের কথা প্রশ্ন করা হলে অভিনেতা জানিয়েছেন, ‘আগে আমরা একা থাকতাম, এখন একসঙ্গে থাকি। বাকি বিয়ের পর একটা বাঙালি পুরুষের জীবনে যা পরিবর্তন আসে আমার ক্ষেত্রেও তাই এসেছে। এবং সেই পরিবর্তনটা আমি বেশ ভালোভাবেই উপভোগ করছি। কিন্তু আমরা দুজনেই প্রচন্ড একঘেয়েমির মধ্যে দিয়ে দিন কাটাচ্ছি। দুজনেই চাই বাইরে গিয়ে কাজ করতে। কিন্তু সব মিলিয়ে বিয়ের পর এই পরিবর্তনটা বেশ মধুর। আমি এবং আমার সঙ্গী দুজনেই একে অপরের সঙ্গে দারুণ উপভোগ করছি। তাই দিনগুলো বেশ ভালই কাটছে’।

করোনার কারণে রবিবারের মতো সপ্তাহের বাকি দিনগুলো ছুটিতে কাটছে। তাই রবিবারের যে মাহাত্ম্য টা ছিল সেটা কোথাও চলে গেছে। ঘরবন্দি এক অলস জীবন কাটাচ্ছে অভিনেতা ও তার স্ত্রী। করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে ঘরে রয়েছেন তারা। যার কারণে জীবন হয়ে উঠেছে অলস। কিন্তু তার মধ্যেও ফ্রেঞ্চ কাট দাড়ি কেটে সেরে ফেললেন ফটোশুট।

বর্তমানে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে অনির্বাণের স্টাইলে এমনি ফিদা তার ফ্যানেরা। সব সময় তার ফ্যানেরা মুখিয়ে থাকে তার ছবি দেখার জন্য। স্ত্রী মধুরিমা ঘুরতে ভালোবাসেন কিন্তু অনির্বাণ একেবারেই উল্টো। সম্প্রতি তারা দুজনে ঘুরে এসেছেন কালিংপং। সেটাই নাকি তাদের ছিল হানিমুন, এমনটাই জানিয়েছেন অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্য। তবে বর্তমানে এই সবকিছু পেছনে ফেলে পুরোদমে কাজ শুরু করতে চান অভিনেতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here