অপারেশনের করাতে গেলেন রোগী, ডাক্তার বললেন, ‘৬ বছর বাদে আসুন, ডেট নেই’!

0
513
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: “ও ডাক্তার, তুমি কতশত পাশ করে, এসেছ বিলেত ঘুরে, মানুষের যন্ত্রণা ভোলাতে। ও ডাক্তার”! নচিকেতার গানের লাইনে রোগীদের চোখে ডাক্তারকে ‘ভগবান’ হিসাবে দেখান হলেও বাস্তব চিত্রের সঙ্গে তা পুরোপুরি অসংগতিপূর্ণ বটে। চলতি বছরে সারা দেশে জুড়ে দেখা গিয়েছে ডাক্তার এবং রোগীর সম্পর্কের অবনতি। রাজ্যে ডাক্তার নিগ্রহের ঘটনার প্রতিবাদে রীতিমতো অচলায়তনে পরিণত হয়েছিল রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রতিষ্ঠানগুলি। প্রকাশ পেয়েছিল ডাক্তার ও রোগীর তিক্ততার সম্পর্ক।

এবার বিচিত্র ঘটনা ঘটল রাজধানীর হাসপাতালে। অল ইন্ডিয়ার ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সের এক হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারকে দেখাতে যান মেরঠের বছর ৩১ এর নাসরিন। জানা গিয়েছে, বিগত ১০ বছর ধরে হৃদরোগ জনিত সমস্যা নিয়ে ভুগছিলেন তিনি। ডাক্তারের কথা মতো অপারেশনের সময় চলে আসায় অ্যাপোয়েন্টমেন্ট নিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে যান হৃদরোগে আক্রান্ত নাসরিন। কিন্তু ডাক্তারের ডেট দেখে রীতিমতো ভীরমি খেয়ে যান তিনি। সার্জেনের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় ২০২৫ সালের আগে কোন ডেট ফাকা নেই তাঁর।

প্রসঙ্গত ২০১৫ সালে চিকিৎসকের তরফে ডেট দেওয়া হয় অপারেশনর। কিন্তু সেই মূহুর্তে পর্যাপ্ত টাকা জোগাড় করতে না পারায়। সাময়িক ভাবে কিছু ওষুধ দিয়ে কাজ চালাচ্ছিলেন তিনি। টাকা জোগাড়ের পর চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করতে গেলে তাকে জানিয়ে দেওয়া হয়,আগামী ৬ বছরে কোন ডেট ফাকা নেই ওই চিকিৎসকের। রোগীর স্বামী জানান, শুনেছি দেশের সেরা হাসপাতাল দিল্লির এইমস এখানে দেখাতে গেলে লম্বা লাইন দিতে হয়। তাই স্ত্রীকে এখানে চিকিৎসা করাতে নিয়ে আসি। আমি পেশায় দিনমুজুর সরকারি হাসপাতালেই স্ত্রীর অপারেশন করানো ছাড়া তাঁর কোনও পথ নেই। দিনমজুর স্বামীর আক্ষেপ, আমাদের এমন অবস্থায় নেই যে স্ত্রীকে নিয়ে বেসরকারি হাসপাতালে যাব। অবশেষে দীর্ঘ নিশ্বাস ছেঁড়ে বিদ্রুপের হাসি হেসে তিনি বলেন, সত্যিই লাইন খুব লম্বা ৬বছর অসুস্থ স্ত্রীকে নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হবে অপারেশনের জন্য।তবে অন্য সরকারি হাসপাতালে চিকিত্‍সক দেখানোর চিন্তা শুরু করেছেন স্বামী-স্ত্রী।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here