kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, উত্তর দিনাজপুর: ‘হেমতাবাদের বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়কে হত্যা করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুরো পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে। এতে দুষ্কৃতী, পুলিশ এবং তৃণমূল যুক্ত রয়েছে।  তিনি আত্মহত্যা করেননি। সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয়েছে। আশা, সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেবে সুপ্রিম কোর্ট। সিবিআই তদন্তেই সব বেরিয়ে আসবে।‘   হেমতাবাদের প্রয়াত বিধায়ক থা বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র নাথ রায়ের বাড়িতে গিয়ে তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে এসে সাংবাদিকদের সামনে এমন কথাই বললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। প্রয়াত বিধায়কের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁদের পাশে থাকার আশ্বাস দিলেন তিনি। সেখানেই প্রয়াত বিধায়কের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন তিনি।  তাঁর সঙ্গে ছিলেন দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু এবং বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার।

উল্লেখ্য, গত ১৩ জুলাই বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে বালিয়ামোড় বাজার এলাকায় একটি বন্ধ মোবাইলের দোকানের সামনের বারান্দায় ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয় হেমতাবাদের বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়ের। পুলিশ এটিকে আত্মহত্যার ঘটনা বললেও প্রয়াত বিধায়কের পরিবার ও বিজেপি খুনের অভিযোগ তুলে সরব হয়। দলীয় বিধায়ক খুনের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে রাজ্যজুড়ে বনধ-সহ ব্যাপক আন্দোলনে নামে বিজেপি।  গোটা ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ মৃত বিধায়কের পকেট থেকে একটি সুসাইডাল নোট উদ্ধার করে। তাতে নিলয় সিংহ ও মাবুদ আলি নামে দু’জনকে তাঁর মৃত্যুর জন্য দায়ী বলে লেখা ছিল। এদের সঙ্গে প্রয়াত বিধায়কের ব্যাবসায়িক লেনদেন ছিল বলে জানা গিয়েছে।

ঘটনার তদন্তভার হাতে নেয় সিআইডি। অভিযুক্ত দু’জনকেই গ্রেফতার করেছে সিআইডি। এই ঘটনার প্রায় একমাস বাদে সোমবার প্রয়াত বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়ের বাড়িতে আসেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। কথা বলেন প্রয়াত বিধায়কের স্ত্রী ও পরিবারের লোকজনের সঙ্গে। এরপর সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘শুধু হেমতাবাদের বিজেপি বিধায়ক খুনই নয়, সারা রাজ্যজুড়ে একই কায়দায় বিজেপি কার্যকর্তাদের খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ ও তৃণমূলে আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত। সিবিআই তদন্তের জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয়েছে। আমাদের আশা, খুব শীঘ্রই সুপ্রিম কোর্ট সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেবে। সিবিআই তদন্ত হলেই বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়ের হত্যাকাণ্ডে পুলিশ ও তৃণমূল নেতারাও ধরা পড়বেন।‘ এরপর তিনি বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়ের হেমতাবাদ এলাকায় মূর্তির ভিত্তিপ্রস্তর ও স্মরণসভায় যোগ দেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু ও বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here