sadhi

ডেস্ক: মালেগাঁও মামলার জেরে বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরের প্রার্থীপদ বাতিলের দাবি উঠেছে। সেই প্রসঙ্গে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খারিজ করতে এবার বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন সাধ্বী প্রজ্ঞা। তাঁর অভিশাপেই নাকি মালেগাঁও মামলার প্রধান তদন্তকারী আধিকারিক হেমন্ত কারকারেকে বেঘোরে মরতে হয়েছে। শুক্রবার সাংবাদিকদের কাছে এমনই দাবি জানিয়েছেন ভোপালের বিজেপি প্রার্থী।

হেমন্ত কারেকার তাঁকে মিথ্যাভাবে ফাঁসিয়েছিলেন দাবি জানিয়ে সাধ্বী প্রজ্ঞার অভিযোগ, মালেগাঁও মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার নির্দেশ এলেও তাঁকে ছাড়তে চাননি তদন্তের নেতৃত্বে থাকা হেমন্ত কারকারে। যেনতেন প্রকারে তাঁকে সন্ত্রাসবাদী সাজানোর চেষ্টা করেছিলেন কারকারে। সেইসময় তিনি নাকি এটিএস আধিকারিককে অভিশাপ দিয়ে বলেছিলেন, ‘তোর সর্বনাশ হবে।’ সেই অভিশাপের জেরেই কয়েকদিনের মধ্যে মুম্বইয়ে জঙ্গি হামলায় গুলি লেগে কারকারের মৃত্যু হয় বলে সাধ্বীর দাবি। শহিদ হেমন্ত কারকারের মৃত্যু নিয়ে ভোপালের বিজেপি প্রার্থীর এই মন্তব্য কেউ ভালোভাবে নেননি। বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে।

হেমন্ত কারকারের মৃত্যুকে ‘মজা’ বানিয়ে সাধ্বী প্রজ্ঞা তাঁকে ‘অপমাণ’ করেছেন বলে দলের তরফে টুইট করেছেন কংগ্রেসের মুখপাত্র সঞ্জয় ঝা। আপ প্রধান তথা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল সহ অন্যান্য বিরোধী নেতারাও সাধ্বী প্রজ্ঞার মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। যার জেরে অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি। তাই সাধ্বী প্রজ্ঞার মন্তব্যের দায় ঝেড়ে ফেলতে তড়িঘড়ি সাংবাদিক বৈঠক করেন বিজেপির মুখপাত্র শাহনাজ হুসেন। সাধ্বী প্রজ্ঞার মন্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘দেশের জন্য যাঁরা প্রাণ দেন, তাঁদের আমরা শহিদ হিসাবে গণ্য করি। আমরা তাঁদের শহিদত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারি না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here