ডেস্ক: জম্মু কাশ্মীর সহ ভারতের সীমান্তবর্তী এলাকাগুলিতে জঙ্গিদের দাপট রুখতে সদা সতর্ক নিরাপত্তারক্ষীরা। কোনওভাবেই স্থলপথে জারিজুরি টিকছে না জঙ্গিদের। তাই এবার ভারতের উপর আক্রমণ শানাতে অন্য পথে হাঁটতে শুরু করল পাক মদতপুষ্ট লস্কর জঙ্গি সংগঠন। শুধু লস্কর নয়, সমুদ্রে হামলা চালাতে প্রশিক্ষন নিয়ে ফেলেছে জইস-ই-মহম্মদ জঙ্গি সংগঠনও খুব শীঘ্রই গভীর সমুদ্রে ভারতের উপর হামলা চালাতে পারে তারা এমনই তথ্য দিয়েছে ভারতের গোয়েন্দা বিভাগ।

গোয়েন্দা বিভাগের তরফে জানা গিয়েছে, সমুদ্রে ভারতের কোনও মালবাহী জাহাজ, তেলের ট্যাঙ্কার বা বন্দরে হামলা চালাতে প্রস্তুত জঙ্গিরা। শুধু তাই নয় রীতিমতো ছক এঁটে জলপথকে মাধ্যম করে ভারতে প্রবেশ করতে পারে ভয়ঙ্কর এই জঙ্গিসংগঠনের সদস্যরা। চলতি বছরের জুন মাস থেকে এই হামলার প্রস্তুতিও শুরু করে দিয়েছে জঙ্গিরা। গোয়েন্দা সূত্রের খবর, এই প্রথমবার নয় এর আগে ঠিক একই রকম ভাবে হামলার তথ্য পাওয়া যায় ২০১০ সালে। ডেভিড কোলম্যানকে গ্রেফতারের পর তাকে জেরা করে তদন্তকারীরা জানতে পারে সমুদ্রপথে কিভাবে হামলা চালানোর প্রশিক্ষন নিচ্ছে জঙ্গিরা। ঠিক সেই একই ছকে এবারও নিজেদের প্রস্তুত করে চলেছে লস্করের মতো জঙ্গি সংগঠনগুলি।

গোয়েন্দাদের তরফে জানানো হয়েছে, লস্করের একাধিক শাখা সংগঠনকে গভীর সমুদ্রে আক্রনের কৌশল শেখাচ্ছে জঙ্গিরা। শেখপুরা, ফয়সলাবাদ এবং লাহোরে চলছে এই প্রসিক্ষন শিবির। যেখানে বিভিন্ন খাল ও সুইমিং পুলে একেবারে নৌসেনাদের ধাঁচে চলছে প্রশিক্ষন শিবির। তাঁদের লক্ষ্য কিভাবে মাঝ সমুদ্র থেকে কোনও জাহাজ ছিনতাই করে ভারতে প্রবেশ করা যায় এবং ২৬/১১ ধাঁচে হামলা চালানো যায়। ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে গোয়েন্দাদের তরফে সতর্ক করা হয়েছে ভারতের নৌসেনাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here