kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ও বালুরঘাট: বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ ডক্টর সুকান্ত মজুমদারকে তার সংসদীয় ক্ষেত্রে ত্রাণসামগ্রী বিনা বাধায় বিলি করতে দেওয়ার সবুজ সংকেত দিল কলকাতা হাইকোর্ট। প্রসঙ্গত, গত ২৩ এপ্রিল বালুরঘাটের গ্রামীণ অঞ্চলে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দিতে গেলে প্রশাসন আটকে দেয় সুকান্ত মজুমদারকে। পরবর্তীতে তাকে হোম কোয়ারেন্টিনের নোটিশ পাঠায় প্রশাসন। এই সবের ভিত্তিতে প্রশাসনিক সিদ্ধান্তকে  চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন তিনি।

কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি দেবাংশু বসাক আজ এই মামলার রায় দান দেন। রায় অনুযায়ী তিনি বিনা বাধায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করতে পারবেন বলে জানান সুকান্তবাবু। তবে কোভিড-১৯ গাইডলাইন মেনে ত্রাণসামগ্রী বণ্টনের শর্ত জুড়ে দিয়েছে হাইকোর্ট। সাংসদ ডঃ সুকান্ত মজুমদারের হয়ে এই মামলা লড়েন আইনজীবী অরিজিৎ বক্সি এবং রাজ্য সরকারের হয়ে অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত।

সুকান্তবাবু এই রায়ের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে জানান, এই লকডাউন পিরিয়ডে আমাকে ও পশ্চিমবঙ্গের বিরোধী সমস্ত সাংসদদের ত্রাণ বিলি করার ক্ষেত্রে বিভিন্ন ভাবে বাধা দেওয়া হয়েছে। তার জন্যই আমি কলকাতা হাইকোর্টের শরণাপন্ন হয়েছিলাম। তার পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি দেবাংশু বসাকের বেঞ্চ আজ রায় দিয়েছে। রায় অনুযায়ী আমি বিনা বাধায় লকডাউনের নিয়ম মেনে নিজের সংসদীয় এলাকায় ত্রাণ বিলি করতে পারব এবং আমাকে আটকানোর কোনও এক্তিয়ার পুলিশ-প্রশাসনের নেই। এই রায়কে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি। এই রায় আমাদের নৈতিক জয় এবং এই রায় প্রমাণ করল আমরা ঠিক পথে ছিলাম। রাজ্য প্রশাসন বা জেলা প্রশাসন ভুল পথে ছিল। কলকাতা হাইকোর্টের এই রায় রাজ্য প্রশাসনের গালে সজোরে একটি থাপ্পড় বলেও জানান তিনি। তিনি আরও জানান, পশ্চিমবঙ্গে যে টুকু গণতন্ত্র টিকে রয়েছে, তা মূলত বিচার ব্যবস্থার জন্যই। না হলে পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র বলে কিছু থাকত না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here