প্রাণহানির আশঙ্কা, অত্যাধুনিক বিমানে ট্রাম্পের সমগোত্রের নিরাপত্তা পেতে চলেছেন মোদী

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সুবাদে দেশের ভিভিআইপি তিনি। তাঁর একাধিক সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপ চিরাচরিত ধারা ভেঙে বিশ্ব মঞ্চে আলাদা জায়গা করে দিয়েছে ভারত। এহেন নরেন্দ্র মোদী যে জঙ্গিদের হাতে খুন হয়ে যেতে পারেন এমন আশঙ্কার কথা বহুবারই শুনিয়েছেন গোয়েন্দারা। যার জেরেই এবার নিরাপত্তা বাড়তে চলেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। তবে যেমন তেমন নয়, একেবারে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনান্ড ট্রাম্পের ধাঁচে।

সংবাদ মাধ্যম সূত্রের খবর, নরেন্দ্র মোদীর নিরাপত্তার স্বার্থে এবার আসতে চলেছে বিশেষ মিশাইলরোধী দুটি বোয়িং ৭৭৭। যা আগামী বছরের জুন মাস নাগাদ ভারতে চলে আসবে। এই বিমান মোদী ছাড়াও আসছে দেশের রাষ্ট্রপতি ও উপরাষ্ট্রপতির জন্য। দুটি বিমানের নাম হবে এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। যাতে থাকবে বিশেষ কনফিগারেশন। অফিস স্পেস ছাড়াও যেখানে থাকছে বিশেষ মিটিং রুম। ইন্ডিয়া ওয়ান বিমানে থাকবে সেল্ফ প্রোটেকশন সুইট(এসপিএস)। এই বিমানে বড় আকারের এয়ারক্রাফ্ট ইনফ্রারেড কাউন্টারমেজার্স, ইন্টিগ্রেটেড ডিফেন্সিভ ইনেকট্রনিক ওয়ারফেরার স্যুট এবং কাউন্টার অ্যাপ্রেসেস ডিসপেন্সিং সিস্টেংম থাকবে। সঙ্গে এই বিমান শত্রুপক্ষের র‍্যাডার বিকল করে দিতেও সক্ষম। সক্ষম বিমানকে লক্ষ্য করে ছোড়া কোনও মিসাইলের গতিপথ বদলে দিতে। বিমানের সতর্কতা এবং কাউন্টারমেজার সিস্টেমগুলির জন্য বিমান চালককে কোনও পদক্ষেপ নিতে হবে না। প্রয়োজন মতো স্বয়ংক্রিয়ভাবেই সেটি কাজ করতে শুরু করে দেবে।

জানা গিয়েছে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারি মাসেই মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্যবহারকারী এই বিমান ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার কথা ছিল। তবে নানান কারণে তা পিছিয়ে যায়। এবার আগামী জুন মাসে দেশের ভিভিআইপি তিন ব্যক্তির জন্য আসতে চলেছে উন্নত প্রযুক্তির বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন এই বিমানগুলি। এর জন্য অবশ্য মোটা অঙ্কের টাকা খরচ করতে হচ্ছে ভারতকে। জানা গিয়েছে বিমানটি কেনার জন্য খরচ হবে ১ হাজার ৩৬১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here