হিন্দু পুরুষদের উচিত মুসলিম মেয়েদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণ করা! নিদান বিজেপি নেত্রীর

0
8790

মহানগর ওয়েবডেস্ক: হিন্দু-মুসলিম নিয়ে বরাবরই খেলে এসেছে বিজেপি, এখনও তা বহাল। বিশেষ করে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর মোদীর ‘ভক্ত’দের দেশভক্তিও প্রবলভাবেই বেড়েছে। বিভিন্ন জায়গায় সংখ্যালঘুদের ধরে তাদের দিয়ে ‘জয় শ্রীরাম’ বলানো, মারধর করা, নিয়ম হয়ে গিয়েছে। প্রতিবাদ তো দূর, দু’এক কথা বলতেও শোনা যায়নি বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বকে। এবার বলতে শোনা গেল বিজেপির মহিলা মোর্চার এক নেত্রীর কথা। তবে তিনি যা নিদান দিলেন তা না শুনলেই যেন সবচেয়ে ভাল হত। মন্তব্য করলেন, মুসলিম মেয়েদের প্রকাশ্যেই ধর্ষণ করা উচিত!

Read More -নতুন মাস পড়তেই মধ্যবিত্তদের জন্য সুখবর! এক পলকে পতন ঘটল রান্নার গ্যাসের দামে

হিন্দু পুরুষদের উচিত মুসলিম মেয়েদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণ করা! এমনই মন্তব্য করলেন উত্তরপ্রদেশের রামকোলার বিজেপি মহিলা মোর্চার নেত্রী সুনীতা সিং গৌড়। এই নিয়ে একটি ফেসবুক পোস্টও দিয়েছেন তিনি। লিখেছেন, ‘মুসলিমদের জন্য একটাই সমাধান রয়েছে। হিন্দু ভাইয়েদের ১০ জন করে দল তৈরি করে মুসলিম মা ও বোনেদের প্রকাশ্য রাস্তায় গণধর্ষণ করা উচিত। এরপর সবাইকে বাজারের মাঝখানে ঝুলিয়ে দেওয়া উচিত। মুসলিম মা ও বোনেদের উচিত নিজেদের সম্ভ্রম লুঠ করতে দেওয়া। কারণ দেশকে রক্ষা করতে এছাড়া আর অন্য কোনও উপায় নেই।’ নেত্রীর কথায়, এইভাবেই একমাত্র দেশকে বাঁচানো সম্ভব!

Read More – বিজেপির শাসনকাল দেশজুড়ে সংখ্যালঘুদের আতঙ্কিত করে তুলেছে, দাবি ওয়েইসির

ফেসবুকের এই পোস্ট মূহুর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্য়াল মিডিয়ায়। কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন দলের এক নেত্রীর এই ধরনের হিংসাত্মক পোস্ট দেখে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে নেটিজেনরা। একজন মহিলা হিসেবে মহিলাদের উদ্দেশে এই ধরনের বিস্ফোরক মন্তব্য কেউ কীভাবে করতে পারেন তা নিয়েই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একদিকে ‘সবকা সাথ, সবকা বিশ্বাস’-এর কথা বলছেন, অন্যদিকে তাঁরই দলের নেত্রীর এহেন মন্তব্য, তোলপাড় করেছে দেশকে। উল্লেখ্য, চাপের মুখে পড়ে ওই নেত্রীকে দলীয় পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছে বিজেপি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here