kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘প্রত্যেক ভারতবাসীর মা হল গরু। তাকে জাতীয় পশু করা হলে দেশে কোনও সন্ত্রাসবাদীর জন্ম হবে না। বাঘের বদলে তাই গরুকেই ভারতের জাতীয় পশু ঘোষণা করা হোক।’ এমনই চমকে যাওয়ার মতো দাবি তুললেন কর্ণাটকের উদুপির পেজাওয়ার মঠের প্রধান বিশ্বেসাতীর্থ স্বামী। বাবা রামদেবের উদ্যোগে আয়োজিত ‘সন্ত সমাগম’ অনুষ্ঠানে এমন দাবি তুললেন তিনি।

গরু নিয়ে প্রথম থেকেই বিভিন্নভাবে প্রচার করছে বিজেপি। গোমাংস খাওয়ার প্রতিবাদেও একাধিকবার কর্মসূচি করেছে তারা। এবার সরাসরি গরুকে জাতীয় পশু করার দাবি তুলে সরব হলেন এই হিন্দু ধর্মগুরু। তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রের উচিত সমস্ত গরুর কসাইখানা বন্ধ করে দেওয়া এবং গরু নিয়ে আরও রক্ষণশীল হওয়া। পাশাপাশি অভিন্ন দেওয়ানি বিধি এবং জন্মনিয়ন্ত্রণ আইন চালু করার দাবিও জানান তিনি। একইসঙ্গে তিনি জানান, মৃত্যুর আগে তিনি রাম মন্দির দেখে যেতে চান এবং তাঁর আশা ভারত রামরাজ্যে পরিণত হবে।

তবে শুধু এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। সন্ত্রাসবাদ বন্ধ করার উপায়ও বাতলে দিয়েছেন! তাঁর কথায়, বাঘকে জাতীয় পশু ঘোষণা করার কারণেই দেশে সন্ত্রাসবাদের বাড়বাড়ন্ত হয়েছে। যদি বাঘের বদলে গরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা করা হয় তাহলে দেশে শান্তি আসবে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here