kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: লকডাউন তোলা নিয়ে গতকাল রাতেই সমস্ত মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছিলেন অমিত শাহ। লকডাউন কীভাবে তোলা যায় বা এর এক্সিট প্ল্যান কী সেই সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রীদের কাছে জানতে চেয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই ফোনালাপের একদিন পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠকে বসলেন অমিত শাহ। আগামী রবিবার চতুর্থ দফার লকডাউন শেষ হওয়ার কথা। তার আগে এদিন সরকারের প্রথম ও দ্বিতীয় কমান্ড বৈঠক সেরে নিলেন আগামী পরিকল্পনা সম্পর্কে।

লকডাউনের জেরে ভারতীয় অর্থনীতি এবং আর্থিক পরিকাঠামো সম্পূর্ণরূপে ভেঙে পড়েছে। এই আর্থিক পরিকাঠামোকে পুনরুজ্জীবিত করা এই মুহূর্তে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রাথমিক লক্ষণ। সূত্রের খবর এই দিনের বৈঠকে মূলত এই আলোচনাই হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়ানোর স্বার্থে বিধিনিষেধ মাথায় নিয়ে কীভাবে অর্থনৈতিক কার্যকলাপ সক্রিয় রাখা যায় তা নিয়ে দুজনে আলোচনা করেছেন। মনে করা হচ্ছে, আগামী রবিবার প্রধানমন্ত্রী নিজের রেডিও অনুষ্ঠান মন কি বাত-এ লকডাউন নিয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে পারেন।

গতকাল মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে অমিত শহর যে আলোচনা হয়েছিল তাতে লকডাউন থেকে বেরিয়ে আসার পরিকল্পনা নিয়ে কথা হয়। যতদূর জানা গিয়েছে, প্রত্যেক মুখ্যমন্ত্রী এবার লকডাউনকে পিছনে রেখে এগিয়ে যাওয়ার পক্ষে কথা বলেছেন। তবে সামাজিক দূরত্ব এবং জমায়েত রোখার মত বিধিনিষেধ জারি রাখার পক্ষে সওয়াল করেছেন সকলেই।

যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার পর গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত দাবি করেন, আরো দুই সপ্তাহের জন্য লকডাউন এর মেয়াদ বৃদ্ধি করা হতে পারে। যেভাবে লাগাতার লকডাউন সত্ত্বেও দেশে করোনার সংক্রমণ মাত্রাতিরিক্তভাবে বেড়ে চলেছে তাতে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারকে। করোনা যুদ্ধে তাদের পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়েছে বলেই দাবি বিরোধীদের। ফলে এই অবস্থায় আগামী রবিবার প্রধানমন্ত্রী কী সিদ্ধান্ত নেন সেদিকেই নজর থাকবে গোটা দেশবাসীর।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here