মহানগর ওয়েবডেস্ক: এতদিন যেন কাশ্মীরকে নিজের সম্পত্তিই ভেবে রেখে দিয়েছিল পাকিস্তান। ভারত ৩৭০ ধারা তুলে নিয়ে কেন্দ্রীয় শাসন লাগু করতেই তেলে বেগুনে জ্বলে উঠেছে ইমরান খান প্রশাসন। ‘বদলা’ নেওয়ার মানসিকতায় একের পর এক পদক্ষেপ নিচ্ছে ইসলামাবাদ। প্রথমে সমস্ত রকম দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এরপর ইসলামাবাদ থেকে ভারতীয় দূতাবাস থেকে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয় রাষ্ট্রদূতকেও। এবং সর্বশেষ সিদ্ধান্ত, সমঝোতা এক্সপ্রেস চলাচল বন্ধ রাখবে পাকিস্তান। সমগ্র ঘটনাপ্রবাহ নিয়ে পাকিস্তানকে নজিরবিহীনভাবে কটাক্ষ করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

ভারত ও পাকিস্তানের সাম্প্রতিক সম্পর্কের কথা উঠতেই আক্ষেপের সুরে রাজনাথ বলে ওঠেন, ‘এমন প্রতিবেশী যেন কেউ না পায়।’ এদিন নয়াদিল্লিতে সেনাবাহিনীর এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এই মন্তব্য করেন তিনি। প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ির কথা উল্লেখ করে রাজনাথ বলেন, কোনও দেশেরই তো নিজেদের প্রতিবেশী পছন্দ করার বিকল্প থাকে না। প্রতিরক্ষামন্ত্রীর কথায়, ‘আমার মূল মাথাব্যথার কারণ হচ্ছে আমাদের প্রতিবেশীরা। সমস্যা হচ্ছে, আপনি নিজের বন্ধু পরিবর্তন করতে পারেন কিন্তু প্রতিবেশী পছন্দ করা আপনার হাতে নেই। ভগবান করুক, এমন প্রতিবেশী যেন কেউ না পায়।’

ভারত জম্মু কাশ্মীরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণা করার পর থেকেই নিজেদের একগুঁয়ে মনোভাব স্পষ্ট করে দিয়েছে পাকিস্তান। যতরকম ভাবে নয়াদিল্লিতে চাপে ফেলা যায়, সব দিক দিয়েই চেষ্টা চলছে। যদিও এখনও পর্যন্ত সেই দিক দিয়ে সুবিধা করে উঠতে পারনি ইসলামাবাদ। চিনকে পাশে নিয়ে নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জেও দিল্লিকে চাপে ফেলার ফেলার চেষ্টা চলছে। উপরন্তু বাণিজ্যে রাশ টানা থেকে শুরু করে অন্যান্য অসহযোগিতাও রয়েছে। এই সব নিয়েই পাকিস্তানকে জোর আক্রমণ শানালেন রাজনাথ সিং।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here