নিজস্ব প্রতিবেদক, কল্যাণী: তারা যে স্থায়ী কর্মী নন, তা তারা নিজেরাও জানেন। তাদের দাবি এটা নয়, যে তাদের স্থায়ী করা হোক। তাদের দাবি তাদের বেতন বাড়ানো হোক। সেই বেতন বাড়ানোর দাবি নিয়েই সোমবার সকাল থেকেই অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করলেন নদিয়া জেলার কল্যাণী জওহরলাল নেহেরু মেডিক্যাল কলেজের অস্থায়ী কর্মীরা। তার জেরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আবার পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছাতেই হাসপাতাল চত্বরে উত্তেজনা চরম আকার নেয়।

বিক্ষোভকারী কর্মীদের বক্তব্য, জওহরলাল নেহেরু মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল কাউকে কোনো কিছু না জানিয়েই বেশ কিছু বহিরাগত কর্মীদের নিয়োগ করেছেন। দীর্ঘদিন ধরে তারা ৬৪০০ টাকা বেতন পাচ্ছেন। কিন্তু এখনকার বাজারদরে তাতে সংসার চালানো দায়। তারা বিষয়টি বারংবার প্রিন্সিপালকে জানিয়েছেন, কিন্তু কোন পদক্ষেপই তিনি নেননি। বেতন কোন ভাবেই বাড়ায়নি কর্তৃপক্ষ। তারই জেরে হাসপাতালের প্রায় ২০০ জন অস্থায়ী কর্মী এদিন হাসপাতাল চত্বরে বেতন বৃদ্ধির দাবি নিয়ে অবস্থান বিক্ষোভে বসেন। তাদের আরও অভিযোগ, বিক্ষোভ চলছে দেখে প্রিন্সিপাল তাদের ডেকে কথা বলতে পারতেন। কিন্তু তা না করে তিনি শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে ভাঙার জন্য আন্দোলনের শুরুতেই পুলিশ ডেকে আনলেন। অথচ তারা কোনো জরুরী পরিষেবা বন্ধ করে আন্দোলন করছেন না। যদিও এ বিষয়ে মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কোনো মন্তব্য করেনি এখনও পর্যন্ত।